Advertisement
Advertisement
CBSE Syllabus

CBSE Syllabus: বাদ ফৈজের কবিতা, ধর্মনিরপেক্ষতা সংক্রান্ত একাধিক অধ্যায়! CBSE’র নয়া সিলেবাস ঘিরে বিতর্ক

ফের শিক্ষাব্যবস্থার গৈরিকিকরণের অভিযোগ তুলছে বিরোধীরা।

Faiz verses excluded from Class 10 textbook in CBSE Syllabus | Sangbad Pratidin
Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:April 23, 2022 4:54 pm
  • Updated:April 23, 2022 5:10 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: CBSE’র দশম শ্রেণির নতুন পাঠক্রম থেকে ছেঁটে ফেলা হল উর্দুকবি ফৈজ আহমেদ ফৈজের (Faiz Ahmad Faiz) কবিতা। দীর্ঘদিন ধরে দশম শ্রেণির ‘ডেমোক্র্যাটিক পলিটিক্স ২’ বইয়ের এক বিশেষ অধ্যায়ে পড়ানো হত ফৈজের দু’টি কবিতার অংশ। কিন্তু এবছরের নতুন পাঠক্রমে সেই দুটি কবিতাই বাদ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে সিবিএসই’র সার্বিক সিলেবাস থেকে বাদ পড়েছে একাধিক অধ্যায়ও।

দশম শ্রেণির ধর্মনিরপেক্ষতা এবং রাজনীতি সংক্রান্ত অধ্যায়ে ১০ বছর ধরে পড়ানো হত ফৈজের কবিতা দু’টির অনুবাদ। প্রথমটির বাংলা তরজমা করলে দাঁড়ায়, “অনেকবার দেখা হওয়ার পরও আমরা অপরিচিত। যেমন অনেকবার বৃষ্টির পরও রক্তের দাগ থেকে যায়।” দ্বিতীয়টির তরজমা করলে দাঁড়ায়, “চোখের জলের যন্ত্রণার, গোপন ভালবাসার অবকাশ নেই, প্রকাশ্যে চলাটুকুও আজ শিকলবন্দি।” পাক জেলে শিকলবন্দি থাকা অবস্থায় এই কবিতাগুলি লিখেছিলেন বিখ্যাত উর্দু কবি। ঐতিহাসিক সেই কবিতাদু’টি আর পড়ানো হবে না CBSE‘র পড়ুয়াদের।

Advertisement

[আরও পড়ুন: আজব কাণ্ড! ট্রান্সফার রুখতে ছাত্রীদেরই স্কুলে আটক করে রাখলেন দুই শিক্ষিকা]

শুধু ফৈজের কবিতাই নয়, সিবিএসই’র সিলেবাস (CBSE Syllabus) থেকে বাদ পড়েছে ধর্মনিরপেক্ষতা সম্পর্কিত একাধিক চ্যাপ্টারও। বাদ পড়েছে ‘গণতন্ত্র এবং বিবিধ’ সংক্রান্ত অধ্যায়। দেশ-বিদেশের সামাজিক বৈষম্য এবং বিভেদ সম্পর্ক পড়ানো হত এই অধ্যায়ে। একাদশ শ্রেণির পাঠক্রম থেকে ছেঁটে ফেলা হয়েছে সেন্ট্রাল ইসলামিক ল্যান্ডস (Central Islamic Lands) নামের একটি অধ্যায়ও। এশিয়া এবং আফ্রিকায় ইসলামিক শাসকদের দাপট নিয়ে পড়ানো হত এই অধ্যায়টিতে। ইসলামিক শাসকদের আমলে এই এলাকাগুলির আর্থসামাজিক পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা করা হত। দ্বাদশ শ্রেণির সিলেবাস থেকে বাদ পড়েছে ‘কোল্ড ওয়ার’ সংক্রান্ত চ্যাপ্টারও।

Advertisement

[আরও পড়ুন: রাবড়ি দেবীর বাড়িতে ইফতার পার্টিতে নীতীশ, বদলাচ্ছে বিহারের রাজনৈতিক সমীকরণ?]

কেন বাদ দেওয়া হল এই অধ্যায়গুলি? সিবিএসই’র শীর্ষকর্তারা এ বিষয়ে এখনও নীরব। তবে অভিযোগ উঠছে, ধীরে ধীরে ধর্মনিরপেক্ষতা এবং বিশ্ব ইতিহাসে ইসলাম এবং কমিউনিস্টদের অবদানও আড়াল করার চেষ্টা করছে সরকার। শিক্ষাব্যবস্থার গৈরিকিকরণের যে অভিযোগ মোদি জমানার শুরু থেকেই উঠছে, সেটাই আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ