BREAKING NEWS

১০ আষাঢ়  ১৪২৮  শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বৈঠকে বসুন নয়তো আন্দোলনের ঝাঁজ বাড়বে, মোদিকে হুমকি আন্দোলনকারী কৃষকদের

Published by: Paramita Paul |    Posted: May 22, 2021 2:52 pm|    Updated: May 22, 2021 4:53 pm

Farmer unions seek Prime Minister's intervention to resume talks over Farm Law | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কৃষি আইন নিয়ে সরকারের সঙ্গে ফের আলোচনায় বসতে চায় কৃষক সংগঠনগুলি। এই মর্মে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Narendra Modi) চিঠি দিল সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা। তাঁদের হুঁশিয়ারি, এই আলোচনা নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে সদার্থক জবাব না মিললে আন্দোলনের ঝাঁজ আরও বাড়ানো হবে।

শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীকে লেথা চিঠিতে আন্দোলনকারী কৃষকরা জানিয়েছেন, “বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতন্ত্রের সরকারের মাথা আপনি। তাই কৃষকদের সঙ্গে আলোচনা পুনরায় শুরুর দায়িত্ব আপনার হাতেই আছে।” উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে বিতর্কিত তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে কেন্দ্রীয় সরকার এবং কৃষকদের মধ্যে ১১ দফা আলোচনা হয়েছে। শেষ দফা বৈঠকে আইন প্রণয়ন ১৮ মাসের জন্য পিছিয়ে দিতে রাজি হয় মোদি সরকার। কিন্তু সেই প্রস্তাবে রাজি হয়নি চাষিরা। বদলে তাঁরা আইন বাতিলে্র দাবিতে সরব হন।

[আরও পড়ুন: ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের ওষুধের সংকট! উদ্বেগ প্রকাশ করে মোদিকে চিঠি সোনিয়ার]

এদিকে করোনা পরিস্থিতিতেও দিল্লির সিংঘু, গাজিয়াবাদ, তিখড়ি, ধানসা ও শাহজাহানপুরে প্রতিবাদ করছেন কৃষকরা। কোভিডে আক্রান্ত হয়ে কয়েকজন আন্দোলনকারীর মৃত্যুও হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে আন্দোলনকারীর ঘরে ফিরে যাওয়া উচিৎ বলেও মনে করছিলেন কেউ কেউ। তবে নিজেদের দাবি থেকে পিছু হঠতে রাজি নন কৃষকরা। তাঁরা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, কৃষি আইন বাতিল করতেই হবে। তাঁদের দাবি, এই বৈঠক নিয়ে কেন্দ্র ইতিবাচক পদক্ষেপ না করলে কোভিড পরিস্থিতির মধ্যেই দেশজুড়ে আন্দোলনের ঝাঁজ বাড়াবেন কৃষকরা।

প্রসঙ্গেত, আগামী ২৬ মে কৃষক আন্দোলনের (Farmer’s Protest) বয়স হবে ছ’মাস। ওই দিন দেশজুড়ে ‘কালা দিবস’ (Black Day) পালনের ডাক দিয়েছে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা। এক সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে এই কথা জানিয়েছেন ওই সংগঠনের শীর্ষ নেতা বলবীর সিং রাজেওয়াল। কালাদিবস পালন সম্পর্কে ভারচুয়াল সাংবাদিক সম্মেলন থেকে রাজেওয়াল জানান, “২৬ মে কৃষক আন্দোলন ছ’মাসে পা দেবে। আবার ওই দিনই মোদির নেতৃত্বাধীন সরকার ৭ বছরে পা দেবে। আর এই সরকার কৃষি বিরোধী। তাই ওই দিন দেশজুড়ে কালা দিবস পালনের ডাক দিয়েছি।” তবে করোনা পরিস্থিতিতে কৃষকরা জড়ো হয়ে আন্দোলন করবেন না। বদলে নিজেদের বাড়ি, ট্রাক্টর, দোকানে কালো পতাকা ঝুলিয়ে প্রতিবাদ জানানো হবে। পাশাপাশি, ওইদিন বিভিন্ন জায়গায় প্রধানমন্ত্রীর কুশপুত্তলিকা দাহ হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: মেলেনি প্রমাণ, বড়সড় ঘুষকাণ্ডে লালুপ্রসাদ যাদবকে রেহাই দিল সিবিআই!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement