BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Budget Session: কংগ্রেসের শাসনকালই ‘আসল অন্ধ কাল’, সংসদে তীব্র আক্রমণ নির্মলার

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: February 11, 2022 1:10 pm|    Updated: February 11, 2022 8:32 pm

Finance Minister Nirmala Sitharaman terms Congress' era as 'Andhkaal' | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাজেট অধিবেশনের জবাবি ভাষণে মোদির মতোই কংগ্রেসকে তুলোধোনা করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ (Nirmala Sitharaman)। রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন প্রস্তাবে যেমন সব ইস্যু বাদ রেখে আগাগোড়া কংগ্রেসকে আক্রমণ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণও তেমনটাই করলেন। দাবি করলেন, ভারতে কংগ্রেসের শাসনকালই ‘আসল অন্ধ কাল’।

আসলে বাজেট বক্তৃতায় স্বাধীনতার ৭৫ বছর থেকে ১০০ বছর পর্যন্ত ‘অমৃতকাল’ হিসাবে বর্ণনা করেছিলেন নির্মলা। পালটা আসে কংগ্রেস শিবির থেকে। শশী থারুর (Shashi Tharoor) নির্মলাকে কটাক্ষ করে বলেন, অমৃতকাল নয়, ওটা আসলে হবে ‘অন্ধ কাল’। থারুরের সেই মন্তব্যে একপ্রকার তেলেবেগুনে জ্বলে উঠেছেন অর্থমন্ত্রী। কংগ্রেসকে পালটা আক্রমণ করে নির্মলা বলেছেন, ”অন্ধ কাল যদি কোনও সময়কে বলতে হয়, সেটা কংগ্রেস জমানাই।”

[আরও পড়ুন: আরও এক রাজ্যে বদলে গেল ভোটের দিনক্ষণ, নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন]

সংসদের দুই কক্ষেই বাজেটের জবাবি ভাষণে নির্মলা ১৯৯১ থেকে ইউপিএ জমানা পর্যন্ত বিভিন্ন ইস্যু তুলে ধরে কংগ্রেসকে তুলোধোনা করলেন। অর্থমন্ত্রী বললেন, “১৯৯১ সালে আপনাদের সরকারের আমল থেকে শুরু করছি। তখন ভারতের হাতে মাত্র দু’দিনের রিজার্ভ ছিল। সেটা হচ্ছে আসল অন্ধ কাল। সেই অন্ধ কালের জন্যই আপনারা অর্থনৈতিক সংস্কারগুলি করতে বাধ্য হয়েছিলেন।” এরপর অর্থমন্ত্রী চলে আসেন ইউপিএ জমানায়। অর্থমন্ত্রী বলেন, “ইউপিএ (UPA) জমানায় যখন দুই অঙ্কের মুদ্রাস্ফীতি ছিল, সেটা ছিল আসল অন্ধ কাল। যখন কয়লা কেলেঙ্কারি হল, টুজি (2G) কেলেঙ্কারি হল, সেটা ছিল আসল অন্ধ কাল।”

নির্মলা আজ কংগ্রেসকে (Congress) নিশানা করে বলেছেন, কোভিডের ধাক্কায় দেশের জিডিপি-র বহর ৯.৫৭ লক্ষ কোটি টাকা কমে গিয়েছে। তা সত্ত্বেও খুচরো বাজারে মূল্যবৃদ্ধির হার ৬.২ শতাংশে আটকে রয়েছে। অথচ, ইউপিএ জমানায় যখন বিশ্বজুড়ে মন্দা দেখা গিয়েছিল, তখন মুদ্রাস্ফীতির হার চলে গিয়েছিল ৯ শতাংশের ওপরে। অর্থমন্ত্রীর দাবি, বিএসএনএল, এমটিএনএলের মতো সংস্থাকে পথে বসিয়েছে কংগ্রেস (Congress)। আর এখন বেসরকারিকরণ নিয়ে কান্নাকাটি করছে।

[আরও পড়ুন: ‘এটাকে ন্যাশনাল ইস্যু বানাবেন না’, হিজাব বিতর্কে জরুরি শুনানির আরজি খারিজ সুপ্রিম কোর্টে]

প্রসঙ্গত, নির্মলার জবাবি ভাষণ চলাকালীন লোকসভা থেকে ওয়াক-আউট করে কংগ্রেস-সহ কয়েকটি বিরোধী দল। তাতে নির্মলা বলেন, সংসদে বসে সত্যিটা শোনার মতো সাহসও কংগ্রেসের নেই।   

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে