BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

যা বলার নাগপুরে বলব, প্রণবের জবাবে বাড়ছে জল্পনা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 3, 2018 4:43 pm|    Updated: June 3, 2018 4:43 pm

Former President Pranab Mukherjee reactes on the issu of attending a RSS event

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের সমাবর্তনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকার জন্য ইতিমধ্যেই সম্মতি দিয়েছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়৷ যা নিয়ে ইতিমধ্যেই ব্যাপক বিতর্ক তৈরি হয় রাজনৈতিক মহলে৷ সরাসরি না হলেও বকলমে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মুখ খোলা হয়েছে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্তের বিষয়ে৷ ঘটনার বেশ কিছুদিন পর এই বিষয়ে মুখ খুললেন প্রণব মুখোপাধ্যায়৷ জানালেন, যা বলার নাগপুরে বলবেন৷

[‘বীরাঙ্গনা’ মেয়েদের দাপটে পিছু হটল সশস্ত্র ডাকাত, প্রাণে বাঁচলেন বাবা]

রাষ্ট্রপতির হওয়ার আগে প্রণব মুখোপাধ্যায় ছিলেন কংগ্রেসের অন্যতম শীর্ষ নেতা৷ দায়িত্ব নিয়ে সামলেছেন অর্থ, স্বরাষ্ট্র, বিদেশের মতো একাধিক গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রক৷ রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের অনুরোধ গ্রহণ করার পরে তাদের একসময়ের ‘ম্যানেজ মাস্টার’-এর বিরুদ্ধে সরসরি না হলেও চাপা সুর চড়িয়েছে কংগ্রেসের অনেক নেতাই৷ কেউ অনুরোধ করেছেন সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার, তো কেউ সরাসরি না করে দেওয়ার পক্ষপাতি৷ প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে মুখ খুলেছেন তাঁর এক সময়ের সহকর্মী প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম, জয়রাম রমেশ, কেরলের বিরোধী দলনেতা রমেশ ছেন্নিথালা প্রমুখ৷ আরএসএস-এর অনুরোধ যখন গ্রহণ করা হয়েই গিয়েছে তখন সেই বিষয়ে তর্কে যেতে নারাজ প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি চিদাম্বরম৷ বরং তিনি অনুরোধ করেন, আরএসএস-এর মতাদর্শ দেশের জন্য কেন ক্ষতিকারক তা জানিয়ে আসুন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি৷ এটাই চেয়েছেন তিনি৷ তবে আরএসএস-কে চাঁচাচোলা ভাষায় সমালোচনা করেছেন কেরলের বিরোধী দলনেতা কংগ্রেসের রমেশ ছেন্নিথালা৷ এমনকি সরাসরি তাদের সাম্প্রদায়িক সংগঠন বলেও চিহ্নিত করেন তিনি৷

[নাচেই মন কাড়লেন, পুরসভার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ‘ডান্সিং আঙ্কল’]

এই সমস্ত বিষয়ে এতদিন চুপ থাকলেও এবার মুখ খুললেন প্রণব মুখোপাধ্যায়৷ বিভিন্ন মহল থেকে ফোন পেয়েছেন তবে এখনই কিছু বলবেন না, যা বলার নাগপুরে বলবেন৷ সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমকে এমনই বার্তা দিয়েছেন তিনি৷ যখন কংগ্রেস প্রবলভাবে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছে, তখন বিপক্ষ যুক্তি খাড়া করছে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ৷ তাঁরা বলছেন, জাতীর জনক মহাত্মা গান্ধী ও প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জয়প্রকাশ নারায়ণও তাদের অনুষ্ঠানে এসেছেন৷ ১৯৬৩-তে প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে তাঁদের খোদ আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী জহরলাল নেহরু৷ প্রসঙ্গত, আগামি ৭ জুন নাগপুরে আরএসএস-এর সদর দপ্তরে হতে যাচ্ছে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে আমন্ত্রণ জানান হয়েছে প্রণব মুখোপাধ্যায়কে৷ আরএসএস-এর নয়া সদস্যদের উদ্দেশ্যে বক্তৃতা রাখবেন তিনি৷ প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ছাড়াও সেখানে উপস্থিত থাকবেন কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহণ মন্ত্রী নীতীন গড়করি৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে