২৭ আশ্বিন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৫ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ফেসবুককে সতর্ক করল কেন্দ্র। তথ্য চুরি, পাচার বা ভারতের নির্বাচন প্রক্রিয়াকে কোনওভাবে প্রভাবিত করার চেষ্টা করা হলে ফেসবুকের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন কেন্দ্রীয় তথ্য-প্রযুক্তি ও আইনমন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদ।

[মাত্র ২১ টাকায় আনলিমিটেড 3G/4G ডেটা দিচ্ছে Vodafone]

ফেসবুকের বিরুদ্ধে তথ্য চুরি বা নির্বাচন প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করার অভিযোগ অবশ্য নতুন নয়। ব্রিটেন ও আমেরিকায় এই নিয়ে বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। কিন্তু ভারতে এমন বিস্ফোরক অভিযোগ উঠে যাওয়াকে অশনি সঙ্কেত হিসাবে দেখছেন অনেকে। রবি শংকর প্রসাদ বলেছেন, ‘ভারত সরকার সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। সোশ্যাল মিডিয়ায় বাকস্বাধীনতার পক্ষে কেন্দ্র।’ কিন্তু কোনও অসাধু উপায়ে ভারতের নির্বাচন প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করার চেষ্টা হলে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ করা হবে।’ তবে এখনই ফেসবুকের বিরুদ্ধে কোনওরকম আইনি পদক্ষেপ করছে না কেন্দ্র।

[সত্যি কি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার সময় এসেছে?]

পার্লামেন্ট হাউস কমপ্লেক্সে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমি খুব স্পষ্ট করে বলতে চাই, কেন্দ্র মুক্ত বক্তব্য, ভাবাবেগ, সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতার পক্ষে। তাই কোনওভাবে ফেসবুকের মতো সোশ্যাল মিডিয়া অসাধু উপায়ে দেশের নির্বাচন প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করলে কড়া শাস্তি পেতে হবে। তিনি এও জানান যে ২০ কোটিরও বেশি ভারতবাসী নিয়মিত ফেসবুক ব্যবহার করেন। আমেরিকার বাইরে এত বেশি ইউজার ফেসবুকের কোথাও নেই বলে দাবি মন্ত্রীর। সংস্থার সিইও মার্জ জুকারবার্গকে সতর্ক করে মন্ত্রী বলেন, ‘মিস্টার মার্ক, আপনি মাথায় রাখবেন ভারতের আইনমন্ত্রীর নজরে রয়েছেন আপনি। ফেসবুককে ভারতে স্বাগত জানাচ্ছি, কিন্তু মনে রাখবেন কোনওরকম তথ্য চুরি আমরা বরদাস্ত করব না।’

শুনুন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বক্তব্য:

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং