৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে যখন কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত চরমে, তখন দিল্লিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক করলেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে মোদিকে অবহিত করেন তিনি। এদিন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গেও বৈঠক করেন রাজ্যপাল। বৈঠকে রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে কেশরীনাথ ত্রিপাঠী ৪৮ পাতার একটি রিপোর্ট দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এদিকে সন্দেশখালি ন্যাজাটে গিয়ে সোমবার নমুনা সংগ্রহ করলেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা আইবি প্রতিনিধিরা।

[আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রী মোদির জন্য পাকিস্তানের আকাশসীমা খোলার আবেদন ভারতের]

২ বিজেপি কর্মীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে শনিবার রাত থেকে উত্তপ্ত বসিরহাট। রবিবার যখন নিহতদের দেহ কলকাতায় আনা নিয়ে ধুন্ধুমার কাণ্ড চলছে সন্দেশখালিতে, তখন রাজ্যের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করতে দিল্লি উড়ে যান রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। খবর ছিল, দিল্লি রওনা হওয়ার আগে বিভিন্ন সূত্র মারফৎ সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করেছেন রাজ্যপাল। পূর্ব নির্ধারিত সূচি মেনে সোমবার দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক করলেন তিনি। তবে, সন্দেশখালির ঘটনা নয়, বৈঠকে রাজ্যের সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে খবর। এদিকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের দেখা করেন রাজ্যপাল। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে তিনি রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে ৪৮ পাতার একটি রিপোর্ট দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

এদিকে সোমবার আবার সন্দেশখালিতে হাজির হন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা আইবির ৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল। ন্যাজাট থানায় তদন্তকারী অফিসারদের সঙ্গে কথা বলেন তাঁরা। শনিবার রাতে যেখানে সংঘর্ষ হয়েছিল, সেই এলাকা ঘুরে দেখেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা। সংগ্রহ করেন নমুনাও।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং