BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

স্ত্রী’র সঙ্গে ঝগড়ার জের, ১৩ বছরের মেয়েকে ধর্ষণ করল বাবা!

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 28, 2019 2:57 pm|    Updated: April 30, 2019 3:18 pm

An Images

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিনি ডিজিটাল ডেস্ক: স্ত্রী’র সঙ্গে ঝগড়ার পর নিজের ১৩ বছরের মেয়েকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির গুরুগ্রামে। স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করলেও ওই যুবককে এখনও গ্রেপ্তার করা যায়নি।

স্থানীয় পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কিছুদিন আগে ৩৯ বছরের ওই ব্যক্তি কিশোরী মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে পালওয়াল এলাকা থেকে কাজের প্রয়োজনে গুরুগ্রামে চলে আসে। তারপর থেকে পেশায় গাড়িচালক ওই যুবক গুরুগ্রামের তিন নম্বর ডিএলএফ এলাকায় পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকছিল।

[আরও পড়ুন- লুকিয়ে ক্যানসারের বিষ! দেশজুড়ে নিষিদ্ধ জনসন অ্যান্ড জনসন বেবি শ্যাম্পু]

নির্যাতিতার মায়ের অভিযোগ, “গুরুগ্রামে আসার পর থেকে আমি স্থানীয় কয়েকটি বাড়িতে পরিচারিকার কাজ করছিলাম। গত ১৯ এপ্রিল রাতে আমার স্বামী মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরে আচমকা ঝগড়া শুরু করে। আমার মাথায় একটি বোতল দিয়েও মারে। এর জেরে মাথা ফেটে গেলেও ওখান থেকে পালিয়ে যেতে সমর্থ হই আমি। তখন ছাদে গিয়ে গালিগালাজ দিতে শুরু করে ও।  অনেকক্ষণ পরে আমার মেয়েকে রাতের খাবার দিতে বলে ঘরে ঢুকে পড়ে। আর পরেরদিন সকালে আমি ঘরে ঢোকার পর মেয়ে জানায়, গতকাল রাতে তাকে ধর্ষণ করেছে ওর বাবা। আমার স্বামীকে বিষয়টি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করতেই সে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। এরপর কয়েকদিন ধরে তাকে ফোন করলেও ফোন ধরেনি। বৃহস্পতিবার ফের ফোন করতেই আমাকে হুমকি দেয়। বলে মেয়েকে আবার ধর্ষণ করবে। এই কথা শোনার পর বাধ্য হয়ে ডিএলএফ থানায় মেয়েকে নিয়ে গিয়ে আমার স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করি।”

[আরও পড়ুন- প্রতারিত ধোনি! নামী সংস্থার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের মাহির]

এপ্রসঙ্গে ৩ নম্বর ডিএলএফ থানার ইন্সপেক্টর রাম কুমার বলেন, “অভিযুক্ত প্রতিদিনই মদ খেয়ে এসে স্ত্রী ও মেয়েকে মারধর করত বলে অভিযোগ। গত ২০ এপ্রিল নির্যাতিতা তার মাকে ধর্ষণের কথা জানায়। তবে তার মা সঙ্গে সঙ্গে অভিযোগ দায়ের না করে গত বৃহস্পতিবার পুলিশের কাছে আসেন। এফআইআর দায়ের হওয়ার পরেই মেয়েটির মেডিক্যাল পরীক্ষা করা হয়েছে। রিপোর্টে তাকে ধর্ষণ করার প্রমাণও পাওয়া গিয়েছে। শুক্রবার বিচারকের সামনে সে গোপন জবানবন্দিও দিয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি অভিযুক্তকে ধরা সম্ভব হবে বলে আমরা মনে করছি।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement