BREAKING NEWS

১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

গণধর্ষণের প্রতিবাদ, শাস্তিস্বরূপ মা-মেয়ের মাথা মুড়িয়ে গোটা গ্রাম ঘোরাল অভিযুক্ত

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 28, 2019 6:53 pm|    Updated: June 28, 2019 6:53 pm

Heads of mother and daughter duo were tonsured for resisting molestation

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গণধর্ষণ রুখে দিয়েছিলেন মা-মেয়ে৷ সেটাই দুজনের ‘অপরাধ’৷ আর তারই নির্মম শাস্তি পেতে হল দুজনকে। মা-মেয়েকে বেধড়ক মারধরের পর মাথা মুড়িয়ে ঘোরানো হল গোটা গ্রাম। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মা-মেয়ের উপর নির্মম অত্যাচারের ঘটনার রিপোর্ট তলব করেছে রাজ্য মহিলা কমিশন৷

[ আরও পড়ুন: ‘গণপিটুনি নয়, তবরেজের বাবা খুন হন’, সংবাদমাধ্যমের খবর ওড়ালেন নিহতের কাকা]

বুধবার ঘটনাটি ঘটে বিহারের বৈশালী জেলায়৷ যুবতীর অভিযোগ, খুরশিদ নামে এক যুবক কয়েক মাস ধরে উত্যক্ত করত তাঁকে। তবে সম্পর্কে রাজি হননি ওই যুবতী৷ তারই প্রতিশোধ নিয়ে বুধবার সন্ধেয় বাড়িতে ঢুকে যুবতীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে ওই যুবক ও সাগরেদরা৷ সেই সময় বাড়িতে উপস্থিত ছিলেন যুবতীর মা৷ ধর্ষণে বাধা দেন তিনি৷ তাতেই বেজায় চটে খুরশিদ ও তার বন্ধুবান্ধবরা৷ মা ও মেয়ের উপর হামলা করে তারা৷ দুজনের শরীরেই হেনস্তার দাগ স্পষ্ট৷ এরপর বাড়ি ছেড়ে চলে যায় খুরশিদ৷ কিছুক্ষণের মধ্যেই একজন নাপিতকে সঙ্গে নিয়ে আবারও বাড়ি ঢোকে ওই যুবকেরা৷ ৫০ বছরের মা ও ২২ বছরের কন্যার মাথা মুড়িয়ে দেয় নাপিত৷ ওই অবস্থাতেই গোটা গ্রাম ঘোরানো হয় তাঁদের৷ প্রতিবেশীরাও ঘটনার প্রতিবাদ করেননি৷

[ আরও পড়ুন: মেলেনি অ্যাম্বুল্যান্স, বাইকে চেপে রক্তাক্ত অবস্থায় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পৌঁছলেন অন্তঃসত্ত্বা]

প্রাথমিকভাবে ঘটনার আকস্মিকতায় হতচকিত হয়ে গিয়েছিলেন যুবতী এবং তাঁর মা৷ পরে যদিও থানায় যান দুজনেই৷ গোটা ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে লিখিত অভিযোগপত্র থানায় জমাও দেন তাঁরা৷ নির্যাতিতারা মোট সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন৷ তবে এখনও পর্যন্ত পুলিশ এই ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে৷ মা-মেয়ের মাথা মুড়িয়ে গোটা গ্রাম ঘোরানোর তীব্র প্রতিবাদ করেছে রাজ্য মহিলা কমিশন৷ স্বতঃপ্রণোদিতভাবে ঘটনার রিপোর্ট তলব করা হয়েছে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে