BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

আকবরের বিরুদ্ধে একজোট ২০ মহিলা, শুরু মানহানি মামলার শুনানি

Published by: Tanujit Das |    Posted: October 19, 2018 11:05 am|    Updated: October 19, 2018 11:05 am

Hearing of M J Akbar's criminal defamation case begins

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লির পাটিয়ালা হাউস আদালতে শুরু এম জে আকবরের আনা মানহানির মামলার শুনানি। বৃহস্পতিবার হয় প্রথম শুনানি৷ পরবর্তী শুনানি ৩১ অক্টোবর। সেদিনই বিদেশ মন্ত্রকের সদ্যপ্রাক্তন রাষ্ট্রমন্ত্রীর বয়ান নথিভুক্ত করা হবে। দেশের একাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। এই প্রথম তার রেশ গড়াল আদালতের চৌহদ্দিতে। এম জে আকবরের বিরুদ্ধে সাংবাদিক প্রিয়া রামানি অভিযোগ করেন। তার জেরে মানহানির মামলা করেছেন আকবর।

[রাজধানীর বাতাসে বিপজ্জনক ভাবে বাড়ছে বিষ, উদ্বিগ্ন পরিবেশবিদরা]

এদিন শুনানির গোড়ায় অভিযোগকারী আকবরের পক্ষে ৪১ পাতার মানহানির অভিযোগ এনে তাঁর আইনজীবী গীতা লুথরা আদালতকে জানান, ‘প্রিয়া রামানির টুইট এবং তার জেরে রি-টুইটের সুবাদে অভিযোগকারীর ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় টুইটটি ১২০০-এর বেশি লাইক পেয়েছে। তার জেরে শেষ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীকে পদত্যাগ করতে হয়েছে। ৪০ বছর ধরে গড়ে তোলা এক ব্যক্তির ভাবমূর্তি নষ্ট করতে অদ্ভূতভাবে মিথ্যা অভিযোগ ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।’ আকবরের কৌঁসুলি আরও বলেন যে, তাঁর মক্কেলের বিরুদ্ধে অভিযোগটি প্রায় ২০-৩০ বছর পরে প্রকাশ্যে আনা হয়েছে। রামানির টুইটকে কেন্দ্র করে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্তরে হইচই হয়েছে, যার জেরে নষ্ট হয়েছে এম জে আকবরের ভাবমূর্তি।
লুথরার দাবি, প্রমাণ না পাওয়া পর্যন্ত অভিযোগ শুধুমাত্র কোনও ব্যক্তির ভাবমূর্তি কলুষিত করার হাতিয়ার ছাড়া কোনও পরিচিতি তৈরি করে না।

[‘হিন্দুরা আমাকে এখন আর নির্বাচনী প্রচারে ডাকেন না’]

উল্লেখ্য, তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক মহিলা শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানিয়েছেন। বুধবার প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেন আকবর। এক বিবৃতির মাধ্যমে তিনি জানান, ‘যেহেতু আদালতে বিচারের প্রত্যাশায় আমি নিজস্ব উদ্যোগে আবেদন জানাতে চলেছি, সেই কারণে সরকারি পদ থেকে পদত্যাগ করা উচিত বলে মনে করছি। নিজ উদ্যোগেই যাবতীয় মিথ্যা অভিযোগের বিরুদ্ধে লড়ব।’ মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ৩১ অক্টোবর ধার্য হয়েছে। সেদিন অভিযোগকারী এম জে আকবরের বয়ান নথিভুক্ত হবে বলে জানা গিয়েছে।অভিযোগকারিণী প্রিয়া রামানি এদিন সংবাদসংস্থাকে বলেন, প্রমাণিত হল আমার অভিযোগে সারবত্তা রয়েছে। এবার আদালত থেকে সুবিচারের আশায় আছি। আকবরের বিরুদ্ধে একজোট হয়েছেন একটি ইংরেজি দৈনিকের ১৯ জন মহিলা সাংবাদিক। এক বিবৃতিতে এই মহিলা সাংবাদিকরা আদালতের কাছে আবেদন করেছেন, প্রিয়ার সঙ্গে যেন তাঁদের
অভিযোগও শোনে আদালত।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে