২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘদিনের প্রেম বদলায়নি পরিণয়ে। জুটেছে কেবল একরাশ হতাশা। অন্যের হাত ধরেছেন প্রেমিকা। তাই দুঃখে-অভিমানে আত্মহননের পথই বেছে নিলেন ২২ বছরের প্রেমিক। জীবনের শেষ মুহূর্তের ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় লাইভ করলেন তিনি।

ঘটনা আগ্রার রায়ভা গ্রামের। শ্যাম শিকারওয়ারের সঙ্গে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল এক যুবতীর। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত তাঁর বিয়ে হয়ে যায় অন্য কারও সঙ্গে। তারপর থেকেই চূড়ান্ত অবসাদে ভুগছিলেন শ্যাম। কোনও কাজেই মন বসাতে পারছিলেন না। এমনকী নিজের চাকরিও খোয়ান তিনি। এই পরিস্থিতি থেকে নিজেকে বের করার চেষ্টাও করেছিলেন। কিন্তু পারেননি। বান্ধবী যে এখন অন্য কারও, এই সত্যিটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলেন না। আর তাই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটা নিয়েই ফেলেন। গত শনিবার সকালে গ্রামের একটি মন্দিরে গিয়ে সেখানেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হন শ্যাম। এলাকায় যিনি রাজ নামেই বেশি পরিচিত ছিলেন। নিজের আত্মহত্যার দৃশ্য ফেসবুকে লাইভ করেন তিনি।

[আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে বাজ পড়ে মৃত ৩২, আর্থিক সাহায্য ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

পুলিশ জানতে পারে, শ্যাম যে আত্মহননের কথা ভাবছেন, তা নিজের বন্ধুদেরও জানিয়েছিলেন। কিন্তু কেউই তাঁর কথার সেভাবে আমল দেননি। তাঁর সমস্যাকে গুরুত্ব দিলে হয়তো বাঁচতে পারত একটা তরুণ প্রাণ। কিন্তু হল অন্যরকমই। মিনিট চারেকের লাইভে শ্যাম পুলিশকে জানান, তাঁর মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। কাউকে যেন গ্রেপ্তার করা না হয়। পাশাপাশি পরিবারের কাছে তিনি অনুরোধ করেন, তাঁর মৃতদেহের ছবি যেন সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করা হয়। ফেসবুক লাইভের পাশাপাশি একটি চারপাতার সুইসাইড নোটও উদ্ধার করেছে পুলিশ। যেখানে নিজের কষ্ট ব্যক্ত করেছেন শ্যাম। লিখেছেন, “আমি ওকে (প্রেমিকা) খুব মিস করি। ওকে ছাড়া বাঁচতে পারছি না। ওর অন্য কাউকে বিয়ে করাটা মেনে নেওয়া কঠিন। মানসিক চাপে ভুগছিলাম। নিজের চাকরিটাও খুইয়েছি।” চিঠিতে অঙ্গদানের ইচ্ছাও প্রকাশ করে গিয়েছেন তিনি। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, গুরগাঁওয়ের একটি কারখানায় কাজ করতেন শ্যাম। তবে সম্প্রতি চাকরি হারিয়েছিলেন। তাঁর লাইভের ভিডিওটি মুছে ফেলে ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি ডিঅ্যাকটিভেট করে দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ক্যানসারে আক্রান্ত ছেলের জন্য মানসিক চাপ! বহুতল থেকে মরণঝাঁপ বৃদ্ধার]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং