২৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রাকৃতিক দুর্যোগ ফের কাড়ল প্রাণ। উত্তরপ্রদেশে বাজ পড়ে মৃত অন্তত ৩২ জন। রবিবারের ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্কে যোগীর রাজ্যের বাসিন্দারা।

একদিকে, বন্যায় বিপর্যস্ত অসম ও বিহার। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। ঘরছাড়া লক্ষাধিক মানুষ। পশুপাখি থেকে বন্য জীবজন্তু- বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সকলেই। অন্যদিকে প্রবল ঝড়-বৃষ্টি থেকে রক্ষা পায়নি উত্তরপ্রদেশও। রবিবার বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিতে বেহাল অবস্থা উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন জেলার। বাজ পড়ে রবিবারই ৩২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। গুরুতর আহত ১৩ জন। এর আগে এ রাজ্যে বাজ পড়ে একজনের মৃত্যু হয়েছিল বলে জানা গিয়েছিল। ১৮ থেকে ২০ জুলাইয়ের মধ্যে আবার দুজন প্রাণ হারিয়েছিলেন সাপের কামড়ে।

[আরও পড়ুন: ক্যানসারে আক্রান্ত ছেলের জন্য মানসিক চাপ! বহুতল থেকে মরণঝাঁপ বৃদ্ধার]

জানা গিয়েছে, মৃতদের মধ্যে চোদ্দজন কানপুর ও ফতেপুরের বাসিন্দা। পাঁচজন ঝাঁসী, চারজন জালাউন, তিনজন হামিরপুর, দুজনের বাড়ি গাজিপুরে। বাকি চারজন জৌনপুর, প্রতাপগড়, কানপুর দেহাত এবং চিত্রকূটের বাসিন্দা। এর আগে যাঁর বাজ পড়ে মৃত্যু হয়েছিল তাঁর বাড়ি ছিল দেওরিয়ায়। আর গত বৃহস্পতি ও শনিবার সাপের কামড়ে মৃত ব্যক্তিদের বাড়ি যথাক্রমে আম্বেদকরনগর ও কুশিনগরে। গোটা ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। প্রাকৃতিক দুর্যোগে মৃতদের পরিবার প্রতি চার লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছেন তিনি। পাশাপাশি জেলা প্রশাসনকে কড়া নির্দেশ দিয়েছেন যেন আহতদের চিকিৎসায় কোনও গাফিলতি না হয়।

[আরও পড়ুন: পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন অন্ত্যেষ্টি, অশ্রুসজল চোখে শীলা দীক্ষিতকে শ্রদ্ধার্ঘ্য কর্মী-সমর্থকদের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং