২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যোগী রাজ্যে এবার গলা কেটে খুন করা হল এক হিন্দুত্ববাদী নেতাকে। শুক্রবার সকালে ভয়াবহ এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের রাজধানী লখনউয়ে। মৃত ব্যক্তি কমলেশ তিওয়ারি হিন্দু মহাসভার প্রাক্তন স্থানীয় প্রধান হওয়ার পাশাপাশি হিন্দু সমাজ পার্টি নামে একটি রাজনৈতিক দলের নেতা।

[আরও পড়ুন: সুপ্রিম কোর্টের পরবর্তী প্রধান বিচারপতি হিসেবে বোবদের নাম সুপারিশ করলেন রঞ্জন গগৈ]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকালে লখনউয়ের খুরশিদ বাগ অফিসে বসেছিলেন কমলেশ তিওয়ারি। সেসময় অজ্ঞাত পরিচয়ের কয়েকজন দুষ্কৃতী তাঁর অফিস আসে। প্রথমে তাঁর সঙ্গে ভালভাবে কথা বলে অফিসে বসে চা খায়। পরে আচমকা ওই হিন্দুত্ববাদী নেতাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এরপর একটি ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁর গলা কেটে এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। কমলেশের চিৎকারে ছুটে আসে আশপাশের লোকেরা। তারপর তাঁকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে সঙ্গে সঙ্গে কাছের একটি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে মৃত্যু হয় কমলেশের। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি দেশীয় পিস্তল ও কয়েকটি কার্তুজ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, হিন্দু সমাজ পার্টি তৈরি করার আগে হিন্দু মহাসভার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন মৃত ওই নেতা। ২০১৫ সালে ইসলাম ধর্মের জনক হজরত মহম্মদের নামে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য তিনি গ্রেপ্তার হয়েছিলেন। তৎকালীন অখিলেশ যাদবের সরকার তাঁকে জাতীয় নিরাপত্তা আইন(এনএসএ)-এর আওতায় অভিযুক্ত করেছিল। এরপর থেকে জেলেই ছিলেন তিনি। সম্প্রতি জামিন পেয়ে জেলের বাইরে আসেন। এলাহাবাদ হাই কোর্টের তরফে তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া জাতীয় নিরাপত্তা আইনের ধারাগুলিও খারিজ করে দেয়।

[আরও পড়ুন:‘ইন্দিরা গান্ধীও দাদুর অনুগামী ছিলেন’, দাবি বীর সাভারকরের নাতির]

উত্তরপ্রদেশের ক্ষমতায় যোগী আদিত্যনাথ আসার পরেই চিন্তায় পড়েছিলেন সেখানে বসবাসকারী মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষরা। কট্টর হিন্দুত্ববাদী ভাবধারায় বিশ্বাসী বলে পরিচিত হওয়ায় আদিত্যনাথের জমানায় তাঁরা সমস্যায় পড়বেন বলেই ভেবেছিলেন। কিন্তু, সেই জায়গা এভাবে দিনদুপুরে উত্তরপ্রদেশের রাজধানী লখনউতে গলা কেটে খুন করা হল এক হিন্দুত্ববাদী নেতাকে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং