৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিগত পাঁচদিন ধরে স্বাস্থ্যক্ষেত্রে যে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে, এবার সেই বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করল কেন্দ্র৷ এই বিষয়ে রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব করল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷ তথ্য পেশ করে মন্ত্রক জানাল, রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভেঙে পড়ার মুখে৷ ২০১৬ থেকে ২০১৯-এর এখন পর্যন্ত এরাজ্যে উল্লেখযোগ্য ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনা৷ সূত্রের খবর, রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে রাজ্যের ভূমিকা জানতে চেয়েও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে রিপোর্ট তলব করা হয়েছে৷ ফের আরও একবার এই ইস্যুতে পাঠানো হয়েছে অ্যাডভাইজারি৷

[ আরও পড়ুন: তান্ত্রিকের সঙ্গে যৌন মিলনের প্রস্তাব স্বামীর! প্রতিবাদ করে খুন স্ত্রী]

জানা গিয়েছে, শনিবার কেন্দ্রের তরফে এই জোড়া রিপোর্ট তলব করা হয়েছে৷ এনআরএস কাণ্ডকে কেন্দ্র করে রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিষেবায় যে জটিলতা তৈরি হয়েছে, তার সমাধানে উক্ত রিপোর্টে রাজ্যের ভূমিকা সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়েছে৷ স্পষ্ট ভাষায় বলা হয়েছে, যত দ্রুত সম্ভব রিপোর্ট পাঠাতে হবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে৷ একই ভাবে রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়েও, এদিন আরও একবার তৎপর হতে দেখা গিয়েছে কেন্দ্রকে৷ মন্ত্রকের তরফে তথ্য দিয়ে জানান হয়েছে, ২০১৬ থেকে ২০১৯-এর এখন পর্যন্ত এরাজ্যে সংঘর্ষের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে৷ ২০১৬-তে এরাজ্যে রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছিল ৫০৯টি৷ ২০১৮-তে সেই সংখ্যাটা বেড়ে হয়েছে ১০৩৫টি৷ এবং ২০১৯-এ এখনও পর্যন্ত রাজ্যে রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে ৭৭৩টি৷ ২০১৬-তে সংঘর্ষে মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৩৬ জন৷ ২০১৮-তে সংখ্যাটা বেড়ে হয় ৯৬৷ এবং ২০১৯-এ এখনও পর্যন্ত সংখ্যা হয়েছে ২৬ জন৷

[ আরও পড়ুন:  ছুটি চেয়ে হেনস্তার শিকার, হরিয়ানায় আত্মঘাতী চিকিৎসক ]

নবান্ন সূত্রে খবর, উক্ত রিপোর্টে উদ্বেগ প্রকাশের পাশাপাশি, রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা ফেরাতে সরকারের গৃহিত পদক্ষেপগুলিও জানতে চেয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷ অপরাধ দমনে প্রশাসনের ভূমিকা কী? কতজন দোষী গ্রেপ্তার হয়েছে? সূত্রের খবর ইত্যাদি নানাবিধ প্রশ্ন তথ্য চাওয়া হয়েছে৷ প্রসঙ্গত, সম্প্রতি সন্দেশখালি কাণ্ডে রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷ তখনও রাজ্যের রিপোর্ট তলব হয়ে হয়েছিল৷ পাঠানো হয়েছিল অ্যাডভাইজারি৷ যাকে কেন্দ্র করে চরমে ওঠে কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত৷ কেন্দ্রকে কড়া বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরকার ফেলে দেওয়ার অভিযোগও করেন তিনি৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং