BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘অপমান করিনি, আমরা সবাই আইটেম’, বিজেপি নেত্রী সম্পর্কে মন্তব্যের সাফাই দিলেন কমল নাথ

Published by: Biswadip Dey |    Posted: October 19, 2020 5:53 pm|    Updated: October 19, 2020 5:53 pm

An Images

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপি (BJP) নেত্রী ইমারতি দেবী সম্পর্কে নিজের বিতর্কিত মন্তব্যের সপক্ষে সোমবার মুখ খুললেন মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ (Kamal Nath)৷ রবিবার এক জনসভায় মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) প্রাক্তন মন্ত্রী ও তাঁর একদা সতীর্থ ইমারতি দেবীকে প্রকাশ্যেই ‘আইটেম’ বলে সম্বোধন করে বিতর্কে জড়ান তিনি। তাঁকে পালটা ‘সামন্ততান্ত্রিক’ বলে কটাক্ষ করে বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ জমা পড়েছে নির্বাচন কমিশনেও। এদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান কমল নাথের মন্তব্যের প্রতিবাদে সোমবার ভোপালে দু’ঘণ্টার জন্য মৌনব্রত পালন করেন।

এই পরিস্থিতিতে সোমবার মুখ খুলেছেন কংগ্রেস নেতা। তিনি মেনে নেন তিনি ওই শব্দ ব্যবহার করেছেন। তবে কমল নাথের যুক্তি, এটা কোনও অসম্মানসূচক শব্দ নয়। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে কংগ্রেসের যোগাযোগ বিভাগের সহ-সভাপতি ভুপেন্দ্র গুপ্তা জানিয়েছেন, এবিষয়ে কমল নাথের বক্তব্য হল, ‘‘হ্যাঁ আমি ‘আইটেম’ বলেছি। এবং এটা কোনও অসম্মানসূচক শব্দ নয়। আমি একটা আইটেম। আপনিও একটা আইটেম। এবং এক্ষেত্রে বলতে গেলে আমরা সবাই আইটেম।’’

[আরও পড়ুন: ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা’, ৩৭০ ফেরানোর দাবির পরই ফারুক আবদুল্লাকে জেরা ইডির]

নিজের মন্তব্যের সপক্ষে যুক্তি দেখাতে গিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘‘লোকসভা ও বিধানসভায় যে ওয়ার্ক শিডিউল থাকে সেখানে আইটেম নম্বর উল্লেখ করা থাকে। একই ভাবে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানেও তা ব্যবহৃত হয়। তাহলে এটা কী করে অসম্মানসূচক হয়?’’তিনি আরও বলেন, ‘‘শিবরাজের খালি বাহানা চাই। কমল নাথ কাউকে অপমান করে না। সে কেবল সত্যকে তুলে ধরবে আপনাদের সামনে।’’

প্রসঙ্গত, কংগ্রেসের অন্তবর্তী সভাপতি সোনিয়া গান্ধীকে লেখা এক চিঠিতে শিবরাজ দাবি করেন, দলের সমস্ত পদ থেকে কমল নাথকে সরিয়ে দিক কংগ্রেস। পাশাপাশি ওই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করুক কংগ্রেস। তিনি লেখেন, ‘‘যদি তা না হয় তাহলে প্রমাণিত হবে আপনি এটাকে সমর্থন করছেন। কথাটা একবার নয়, জনসভায় দু’বার ব্যবহৃত হয়েছে।’’

[আরও পড়ুন: থানায় আটকে রেখে ১০ দিন ধরে গণধর্ষণ! কাঠগড়ায় পাঁচ পুলিশকর্মী, লজ্জার ছবি মধ্যপ্রদেশে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement