BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

স্বামী লাদাখে, স্ত্রী অরুণাচলে, কুকুরের হাঁটার জন্য স্টেডিয়াম ফাঁকা করার ‘শাস্তি’ পেল IAS দম্পতি

Published by: Paramita Paul |    Posted: May 27, 2022 12:58 pm|    Updated: May 27, 2022 1:18 pm

IAS transferred to Ladakh and Arunachal Pradesh on Delhi stadium dog walking | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্টেডিয়াম (Delhi Stadium) ফাঁকা করে কুকুর নিয়ে হাঁটতে যান আমলা দম্পতি। সেই অভিযোগ প্রকাশ্যে আসতেই শাস্তিমূলক পদক্ষেপ করা হল অভিযুক্ত আমলাদের বিরুদ্ধে। দেশের দুই প্রান্তে বদলি করে দেওয়া হল তাঁদের দু’জনকে। সঞ্জীব খিরওয়ার নামে ওই আমলাকে বদলি করা হয়েছে লাদাখে। তাঁর স্ত্রী রিঙ্কু দুগ্গাকে বদলি করা হয়েছে অরুণাচল প্রদেশে। এই দু’জনের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করারও দাবি জানিয়েছে দিল্লির বিজেপি নেতৃত্ব।

কিন্তু রিঙ্কুকে অরুণাচলে বদলি করা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ মহুয়া মৈত্র (Mahua Moitra)। তাঁর মতে, এমন ‘অভদ্র’ অফিসারকে উত্তর পূর্বের একটি রাজ্যে শাস্তিমূলক বদলি করার অর্থ ওই রাজ্যকে ‘অপমান’ করা। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজিজু এবং অরুণাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডুকে ট্যাগ করে তিনি টুইটারে লিখেছেন, “অরুণাচলে একজন অভদ্র অধিকারিককে বদলি করে ওই রাজ্যকে অপমান করা হচ্ছে কেন? উত্তরপূর্বের রাজ্যগুলিকে অবহেলা করা হয়। তারপরে নিজেদের বর্জ্য ফেলার জায়গা হিসেবে ভাবা হয়, কেন? আপনারা এই ঘটনার প্রতিবাদ করুন।”     

বিভিন্ন সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, স্বরাষ্ট্র দপ্তরের কাছে ওই দম্পতির বিরুদ্ধে রিপোর্ট তলব করে দিল্লি সরকার। সেই মর্মেই দিল্লির মুখ্যসচিব  রাকেশ কুমার সিং জানিয়েছেন, অভিযুক্ত দম্পতিকে অবিলম্বে বদলি করে দেওয়া হোক। বৃহস্পতিবার বিকেলেই তাঁদের বদলির আদেশ চূড়ান্ত করা হয়। তাঁদের বিরুদ্ধে আরও শাস্তিমূলক পদক্ষেপ করা হতে পারে, এমনটাও জানা গিয়েছে। এহেন ঘটনার পরে রসিকতা করে নেটিজেনরা প্রশ্ন করেছেন, তাহলে কুকুরটি কার কাছে থাকবে?

[আরও পড়ুন: সংসদীয় কমিটির গোপন নথিও বাজেয়াপ্ত করেছে CBI, স্পিকারকে বিস্ফোরক চিঠি কার্তির]

প্রসঙ্গত, একটি সর্বভারতীয় সংবাদসংস্থার তদন্তে উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা যায়, এক আইএএস (IAS Officer) অফিসার তাঁর পোষ্যকে নিয়ে হাঁটতে যান দিল্লির থগরাজ স্টেডিয়ামে। সেই কারণেই তাড়াতাড়ি স্টেডিয়াম খালি করে দেওয়া হয়। এমন খবর প্রকাশিত হওয়ার পরেই নড়েচড়ে বসে দিল্লি প্রশাসন। মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal) নির্দেশ দিয়েছেন রাত দশটা পর্যন্ত খোলা রাখতে হবে সরকারের অধীনস্থ সমস্ত স্টেডিয়াম।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কোচ জানিয়েছেন, “সন্ধে হয়ে গেলেও আমরা আলো জ্বালিয়ে রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত প্র্যাকটিস করতাম। কিন্তু এখন আমাদের সন্ধে সাতটার মধ্যে কাজ শেষ করে বেরিয়ে যেতে বলা হয়েছে। কারণ এক আইএএস অফিসার তাঁর পোষ্যকে নিয়ে এখানে হাঁটতে আসেন। আমাদের ট্রেনিং এবং প্র্যাকটিসের ক্ষতি হচ্ছে।”

দিল্লি সরকারের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন অলিম্পিকে ব্রোঞ্জজয়ী কুস্তিগির যোগেশ্বর দত্ত। তিনি বলেছে, “গতকাল এই খবর দেখেছি আমি। ওই অফিসারদের বদলি করার সিদ্ধান্তে আমি খুব খুশি। এই প্রথমবার এত তাড়াতাড়ি অ্য়াথলিটদের সমস্যার সমাধান করা হল। অ্য়াথলিটরা যেসব সুযোগ সুবিধা পান, সেখানে যেন কোনওরকম বাধা না দেওয়া হয়।      

[আরও পড়ুন: আজমেড়ের বিখ্যাত খাজা মইনুদ্দিন চিস্তির দরগাও আসলে মন্দির! দাবি হিন্দু সংঠনের

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে