BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘নষ্ট হয়ে গেছি’, সুইসাইড নোট লিখে আত্মঘাতী আইআইটি হায়দরাবাদের মেধাবী ছাত্র

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 3, 2019 2:45 pm|    Updated: July 3, 2019 2:45 pm

IIT student in Hyderabad found to be hanged and suicide note recoverd

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘এই বিরাট পৃথিবীতে একজন ব্যর্থ মানুষ আমি৷ পুরোপুরি নষ্ট হয়ে গিয়েছি৷’ – সুইসাইড নোটে এসব লিখেই নিজেকে শেষ করে দিল আইআইটি হায়দরাবাদের স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্র মার্ক অ্যান্ড্রু চার্লস৷ মঙ্গলবার দুপুরে হস্টেলের ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় তাঁর দেহ উদ্ধার করা হয়৷ পাশেই ছিল সুইসাইড নোট, যার ছত্রে ছত্রে মানসিক অবসাদ আর হতাশার বহিঃপ্রকাশ৷ তদন্তে নেমেছে সাংগারেড্ডি থানার পুলিশ৷

[ আরও পড়ুন: লোকসভার উলটো ফল রাজস্থানেও, পঞ্চায়েত উপনির্বাচনে বড় জয় কংগ্রেসের]

বারাণসীর ছাত্র মার্ক অ্যান্ড্রুজ ডিজাইনিং নিয়ে পোস্ট গ্র্যাজুয়েশন করতে ভরতি হয়েছিল হায়দরাবাদ আইআইটি’তে৷ দিব্যি চলছিল পড়াশোনা৷ ভাল নম্বরও পেয়েছিল মার্ক৷ কিন্তু ধীরে ধীরে পরিস্থিতি কেমন বদলে যেতে থাকে৷ বন্ধুদের থেকে দূরত্ব বাড়ছিল৷ ক্লাস বাদ দিয়ে হস্টেলে নিজের ঘরে চুপচাপই থাকত৷ বাড়ির লোকের সঙ্গেও সেভাবে যোগাযোগ করত না৷ সহপাঠীরা জানিয়েছে, সোমবার রাত ১১টা নাগাদ হস্টেলে নিজের ঘরে ঢুকেছিল মার্ক৷ তারপর আজ দুপুর পর্যন্ত তাঁকে কেউ দেখতেই পায়নি৷ আর তাতেই আতঙ্কিত হয়ে খবর দেওয়া হয় স্থানীয় থানায়৷ পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হস্টেলের দরজা ভেঙে তাঁকে উদ্ধার করা হয়৷ প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান, গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন মার্ক৷

এরপরই উদ্ধার হয় তাঁর লেখা সুইসাইড নোট৷ তাতে লেখা, ‘আমি কখনও ভাবিনি যে এভাবে তোমাদের বলতে হবে৷ আমাকে মনে রেখো না৷ আমি তার যোগ্য নই৷ শুধু জেনো, আমি তোমাদের ততটাই ভালবাসি, যতটা তোমরা আমাকে ভালবেসেছো৷  আমি খুব দুঃখী…’৷ এরপর মা,বাবার উদ্দেশেও সে লিখেছে, ‘সবচেয়ে ভাল অভিভাবক তোমরা, তোমাদের ধন্যবাদ৷ আমি দুঃখিত, আমি একেবারেই নষ্ট হয়ে গিয়েছি৷’

[ আরও পড়ুন: মুম্বইয়ের রত্নগিরিতে বাঁধ ভেঙে ভেসে গেল ৭টি গ্রাম, মৃত একাধিক]

মার্কের এমন পরিস্থিতিতে সহপাঠীদের পাশাপাশি শোকাহত আইআইটি কর্তৃপক্ষও৷ প্রিন্সিপ্যাল নিজে দুঃখপ্রকাশ করে বলছে, ‘এই মেধাবী ছাত্রের মৃত্যু আমাদের কাছে অপূরণীয় ক্ষতি৷ তার আত্মার শান্তি কামনা করি৷ পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি৷’ পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, পড়াশোনা নিয়ে উদ্বেগ এবং মানসিক চাপে ভুগছিল মার্ক অ্যান্ড্রুজ৷ হয়ত সেই কারণেই এমন আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ সুইসাইড নোট দেখে মনোবিদদের একাংশের মত, জীবনের যে কোনও প্রতিকূলতার মুখোমুখি হওয়ার মতো মনের জোর ছিল না মার্কের৷ তাই জীবন থেকে পালাতে চেয়েছে৷ আজকের প্রতিযোগিতার যুগে এমন দুঃখজনক ঘটনা অহরহ ঘটছেই৷ আর তা চিন্তা বাড়িয়ে তুলছে মনোবিদ, সমাজবিদদের৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে