BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লাদাখ সীমান্তে মাঝরাতে ফের গুলির লড়াই, LAC পেরিয়ে হামলা চালিয়েছে ভারত, দাবি চিনের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 8, 2020 8:47 am|    Updated: September 8, 2020 8:47 am

India-China Standoff: Incident of firing took place on LAC

চিনের এলাকায় ঢুকে ভারতই প্রথম গুলি চালিয়েছে, দাবি সেদেশের সংবাদমাধ্যমের।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের মাঝরাতে গুলির লড়াই। উত্তপ্ত পূর্ব লাদাখ সীমান্ত। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা (LAC) বরাবর ভারত ও চিনা সেনার এই গুলির লড়াইয়ে কোনও প্রাণহানির খবর পাওয়া যায়নি। তবে, যে এলাকায় এই গোলাগুলি হয়েছে, সেটা বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। চিনা সেনার দাবি, ভারতই LAC পেরিয়ে চিনের এলাকায় ঢুকে গুলি চালিয়েছে। যদিও, ভারতীয় সেনা এখনও এ নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি।

সেনা সূত্রের খবর, সোমবার মধ্যরাতে ফের প্যাংগং লেক (Pangong Tso) সংলগ্ন এলাকায় ভারত ও চিনের সেনার মধ্যে সংঘর্ষ হয়। চিনের দাবি, সোমবার মধ্যরাতে প্যাংগং লেকের দক্ষিণ উপকূলে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে চিনাদের সীমানা অতিক্রম করেছিল ভারত। চিনের এলাকায় গিয়ে ভারতই নাকি প্রথম গুলি চালিয়েছে। চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস পিপলস লিবারেশন আর্মির (People’s Liberation Army) মুখপাত্রকে উদ্ধৃত করে বলছে, ৭ সেপ্টেম্বর রাতে ভারতীয় সেনা বেআইনিভাবে সীমানা পেরিয়ে ব্যাংগং হুনুন এলাকায় ঢুকে পড়ে। সেসময় চিনা সেনার আধিকারিকরা তাঁদের সঙ্গে কথা বলতে গেলে তাঁরা বিনা প্ররোচনায় গুলি চালাতে থাকে। যার জবাব দেয় চিনা সেনা। চিনের তরফে এই দাবি করা হলেও, ভারতীয় সেনার তরফে সরকারিভাবে এ বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া এখনও আসেনি। তবে সেনা সূত্রের খবর, ভারত নয়, চিনা সেনাই আগে গুলি চালিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘চিন রবীন্দ্রনাথকে ডরায় না, ভারত PUBG-কে ভয় পাচ্ছে কেন?’ আজব যুক্তি বেজিংয়ের]

উল্লেখ্য, গত প্রায় মাস পাঁচেক ধরেই উত্তপ্ত পূর্ব লাদাখ (Ladakh) সীমান্ত। গালওয়ান, দেপসাং এবং হট স্প্রিং এলাকার পর এখন সংঘর্ষের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে প্যাংগং শো লেক। যদিও সীমান্তের বিবাদ মেটাতে দিন দুয়েক আগে সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের সম্মেলনে গিয়ে ভারত এবং চিনের প্রতিরক্ষামন্ত্রক স্তরের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হয়। প্রায় আড়াই ঘণ্টার সেই বৈঠকের পরও কোনও সমাধান সূত্র বের হয়নি। তারপরই এই সংঘর্ষ বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। আসলে ভারত চিনকে স্পষ্ট বার্তা দিতে চাইছে, যে কোনওরকম চাপে মাথা না নুইয়ে চিনাদের আগ্রাসনের যোগ্য জবাব দেওয়া হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে