BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বেআইনিভাবে গিলগিট-বাল্টিস্তানে নির্বাচনের নির্দেশ! পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি নয়াদিল্লির

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 4, 2020 5:31 pm|    Updated: May 4, 2020 5:34 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাক অধিকৃত কাশ্মীরের গিলগিট-বাল্টিস্তান নিয়ে নতুন করে ভারত পাক কূটনৈতিক টানাপড়েন শুরু। স্বাধীনতার পর থেকে বেআইনিভাবে নিজেদের দখলে রাখা গিলগিট-বাল্টিস্তানে (Gilgit-Baltistan) নির্বাচনের নির্দেশ দিয়েছে পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট। একই সঙ্গে নির্বাচনের আগে পর্যন্ত এই এলাকায় অন্তর্বর্তীকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার তৈরি করে শাসনভার চালানোরও নির্দেশ দেওয়া হয়। যা কিনা ওই এলাকার প্রশাসনিক চরিত্র বদলের শামিল। পাকিস্তানের এই ‘জবরদখলের’ তীব্র প্রতিবাদ করেছে নয়াদিল্লি। পাকিস্তানকে অবিলম্বে ওই এলাকা খালি করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

স্বাধীনতার পর থেকেই ওই বিরোধপূর্ণ অঞ্চল ‘অবৈধ’ ভাবে দখল করে রেখেছে পাকিস্তান। কিন্তু ওই এলাকা ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ। বছর দুই আগে দিল্লির এই দাবিতে সিলমোহর দিয়েছে ব্রিটিশ পার্লামেন্টও। পাকিস্তান যেহেতু ওই এলাকা জবরদখল করে রেখেছে, সেহেতু সেখানে নির্বাচন করানোর অধিকার পাক সরকারের নেই। তা সত্বেও গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট ওই এলাকায় নির্বাচন করানোর নির্দেশ দেয়। পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সংবিধান অনুসারে স্থানীয় নির্বাচনে অংশ নিতে হলে বাধ্যতামূলকভাবে পাক অন্তর্ভুক্তিকে সমর্থন করতে হয়। শুধু তাই নয়, ‘পাকিস্তানের প্রতি আনুগত্যের’ শপথও নিতে হয় বাসিন্দাদের। নির্বাচন ঘোষণা করে আসলে গিলগিট-বাল্টিস্তান এলাকার চরিত্র বদলাতে চাইছে পাকিস্তান। আর সেটা বুঝতে পেরেই ক্ষোভে ফুঁসে উঠেছে দিল্লি।

[আরও পড়ুন: জল্পনা উসকে NAM বৈঠকে নমো, হবে করোনা মহামারি নিয়ে আলোচনা]

বিদেশ মন্ত্রকের তরফে এক বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, “জম্মু-কাশ্মীরের যে বিস্তীর্ণ এলাকা পাকিস্তান বেআইনি ভাবে দখল করে রেখেছে, সেখানে কোনওরকম প্রশাসনিক পদক্ষেপ এবং পরিবর্তন বরদাস্ত করা হবে না।ওই এলাকা অবিলম্বে খালি করে দেওয়া উচিৎ পাকিস্তানের।৭০ বছর ধরে ওই এলাকার মানুষের মানবাধিকার লঙ্ঘন করে আসছে পাকিস্তান। তাঁদের উপর অত্যাচার করে আসছে। এই পদক্ষেপ করে সেসব অত্যাচারের কাহিনী ধামাচাপা দেওয়া যাবে না।” দিল্লির এক বর্ষীয়ান পাক কূটনীতিকের কাছেও এ নিয়ে নালিশ জানিয়েছে ভারত। জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, এই ধরনের পদক্ষেপ করলে তার পরিণাম ভাল হবে না। তাছাড়া, ভারতের পাশাপাশি পাকিস্তানের মানবাধিকার কমিশনও গিলগিট-বাল্টিস্তানে নির্বাচনের সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করেছে। তাঁরা বলছে, কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘন করা নিয়ে আর অভিযোগ করা সাজে না পাকিস্তানের। কারণ, দীর্ঘদিন ধরে দখলে রাখা গিলগিট-বাল্টিস্তানকে তাঁরা কোনও বিশেষ মর্যাদায় দেয়নি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement