BREAKING NEWS

১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  সোমবার ২৫ মে ২০২০ 

Advertisement

‘করোনার জেরে মন্দার মুখে বিশ্ব, প্রভাব পড়বে না ভারতে’, আশা রাষ্ট্রসংঘের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 31, 2020 1:15 pm|    Updated: March 31, 2020 1:15 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আতঙ্কের মধ্যেই ভারতের অর্থনীতি নিয়ে সুখবর শোনাল রাষ্ট্রসংঘ। করোনার মারে বিশ্ব অর্থনীতি কাহিল হয়ে গেলেও ভারতের উপর এর কোনও প্রভাব পড়বে না। এমনটাই বলা হচ্ছে রাষ্ট্রসংঘের বাণিজ্যিক রিপোর্টে। ভারতের পাশাপাশি করোনার আঁতুড়ঘর চিনও অর্থনীতির মার থেকে রক্ষা পেয়ে যাবে বলে মনে করছে রাষ্ট্রসংঘ (United Nations)।

Economy-women-labour-Re

 

রাষ্ট্রসংঘের বাণিজ্যিক রিপোর্টে বলা হয়েছে, করোনার জেরে সার্বিকভাবে হাজার হাজার কোটির লোকসানের মুখ দেখতে হবে বিশ্ব অর্থনীতিকে। সবচেয়ে বেশি প্রভাবিত হবে উন্নয়নশীল দেশগুলি। যেগুলিতে কিনা বিশ্বের তিন ভাগের দুই ভাগ মানুষ বাস করেন। রাষ্ট্রসংঘের মতে, এই সংকট কাটিয়ে উঠতে প্রায় ২.৫ ট্রিলিয়ন ডলার প্রয়োজন। উন্নত দেশগুলি এবং ভারত মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত প্রায় ৫ হাজার কোটি ডলার ত্রাণ ঘোষণা করেছে। যা এই পরিস্থিতিতে চমকপ্রদ বলে মনে করছে ইউনাইটেড নেশনস। এরপরই তাঁরা বলছে, বিশ্বব্যাপী এই মন্দার মার থেকে রক্ষা পেয়ে যেতে পারে ভারত ও চিন। যদিও কীসের ভিত্তিতে একথা বলা হচ্ছে তা স্পষ্ট করা হয়নি রিপোর্টে। তবে, ভারত সরকারের আর্থিক প্যাকেজের জেরেই রাষ্ট্রসংঘ এমন মনে করছে বলে ধারণা অর্থনৈতিক মহলের। অন্যদিকে, চিনের অর্থনীতিও স্বাভাবিক হওয়ার পথে। অধিকাংশ জায়গা থেকে উঠে গিয়েছে লকডাউন। ফলে সচল হচ্ছে অর্থনীতি।

[আরও পড়ুন: সুস্থ হওয়ার পরও সংক্রমণ ছড়াতে পারেন করোনা আক্রান্ত! জানুন কী বলছে গবেষণা]

দিন দুই আগেই আন্তর্জাতিক অর্থ ভাণ্ডার (International Monetary Fund) ঘোষণা করেছে, করোনার জেরে এক দশকের সর্ববৃহৎ আর্থিক মন্দার দিকে হাঁটছে বিশ্ব। আইএমএফের মতে, এখনই করোনার প্রকোপ কমানো না গেলে আগামী বছরও বিশ্ব অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াতে পারবে না।আর্থিক এই মন্দার মূল কারণ হল লকডাউন। আইএমএফ প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা মনে করছেন, এই লকডাউন বিশ্বের আর্থিক এবং সামাজিক কাঠামো ভেঙে দেবে। এর ফলে বহু সংস্থায় ছাঁটাই এবং বহু মানুষের কাজ হারানোর আশঙ্কা করছেন তিনি। তাঁর মতে, আগস্ট-সেপ্টেম্বর মাসে এই মন্দা চরমে উঠবে। এই ধাক্কার কথা মেনে নিয়েও রাষ্ট্রসংঘ ভারতের রেহাই পাওয়ারই পূর্বাভাস দিল রাষ্ট্রসংঘ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement