BREAKING NEWS

১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দেশে টানাটানি সত্বেও সার্বিয়াতে চিকিৎসা সরঞ্জাম রপ্তানি! কেন্দ্রকে তোপ কংগ্রেসের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 2, 2020 2:33 pm|    Updated: April 2, 2020 2:33 pm

India Sends COVID-19 Protective Gear To Serbia Amid Huge Shortage

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা রুখতে উপযুক্ত সামগ্রীর জোগান নেই। খানিকটা ঢালহীন নিধিরাম সর্দারের মতো মারক রোগের বিরুদ্ধে লড়তে হচ্ছে চিকিৎসক-নার্সদের।চিকিৎসার জন্য মাস্ক, ভেন্টিলেটর এবং PPE কোনওটাই পাচ্ছেন না তাঁরা। অথচ, এই পরিস্থিতিতেও করোনার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক লড়াইয়ের অংশ হিসেবে প্রায় ৩৫ লক্ষ সার্জিক্যাল গ্লাভস সার্বিয়া পাঠানোর সিদ্ধান্তে ছাড়পত্র দিয়েছে সরকার। যা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে সরকার।

[আরও পড়ুন: ‘পাশে আছি’, কেরলে আটকে পড়া শ্রমিকদের বাংলায় বার্তা শশী থারুরের]

মঙ্গলবার কোচির কাস্টমস বিভাগ জানায় করোনার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক লড়াইয়ের অংশ হিসেবে ওই ৩৫ লক্ষ সার্জিক্যাল গ্লাভস রপ্তানিতে ছাড়পত্র দিয়েছে তাঁরা। কেরলের একটি কোম্পানি এই চিকিৎসা সরঞ্জাম গুলি সার্বিয়াকে বিক্রি করছে। ইতিমধ্যেই সেই ৯০ টন চিকিৎসা সামগ্রী বেলগ্রেড পৌঁছেও গিয়েছে। সরকার জানিয়েছে যে সার্জিক্যাল গ্লাভস রপ্তানি করা হয়ছে, তাঁর উপর ভারতে কোনও নিষেধাজ্ঞা নেই।কিন্তু সরকারের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তুলছে কংগ্রেস (Congress)। 

[আরও পড়ুন: লকডাউনের মধ্যেই রাম নবমীর শুভেচ্ছাবার্তা প্রধানমন্ত্রীর, টুইটে লিখলেন ‘জয় শ্রীরাম’]

বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা তথা সাংসদ মনীশ তিওয়ারি (Manish Tewari) বলছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, এটা কী চলছে? করোনার বিরুদ্ধে যারা সামনে থেকে লড়াই করছেন সেই স্বাস্থ্যকর্মীদের নিজেদের বাঁচানোর সরঞ্জামের জন্য লড়াই করতে হচ্ছে। আর সেগুলিই সার্বিয়াতে পাঠিয়ে দেওয়া হল। আমরা কি বোকা? এটা অপরাধ।” দলের আরেক মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালার প্রশ্ন, “করোনায় আক্রান্ত রোগী, ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীরা প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের অভাবে বিপদের মুখে। তাঁরা রেনকোট-হেলমেট পরে নিজেদের বাঁচানোর চেষ্টা করছেন। তখন সরকার কেন দেশ ও দেশবাসীই প্রথম, এই নীতি নিয়ে চলছে না?”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে