BREAKING NEWS

১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘বালাকোটের পরদিন পাকিস্তানে হামলার প্রস্তুতি ছিল সেনার’, পরিকল্পনা ফাঁস বিএস ধানোয়ার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: December 15, 2019 11:58 am|    Updated: December 15, 2019 12:02 pm

'Indian military was ready to strike on Pak army after Balakot': BS Dhanoa

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বছরের প্রথমে ভারত-পাকিস্তানের লড়াই আরও জোরদার হতে পারত। বালাকোটের জঙ্গিঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিতে ভারতীয় বিমানবাহিনীর হামলার পরদিনই পাক সেনা উপর আঘাত হানতে প্রস্তুতি সারছিল ভারতীয় সেনা। এই তথ্য প্রকাশ করে যুদ্ধের আবহ যেন ফের কিছুটা উসকে দিলেন প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান বিএস ধানোয়া।

তাঁর কথায়, ”বালাকোট হামলার পরেরদিন পাক সেনাবাহিনী আমাদের সেনা ছাউনিগুলোকে টার্গেট করেছিল। প্রত্যাঘাত আসবে, এমন আশঙ্কা করে আমাদের সেনাবাহিনীও ওদের সামনের সারিতে আঘাত হানার প্রস্তুতি নিয়েছিল। কিন্তু ওরা আমাদের উপর পালটা আঘাত করতে পারেনি। তাই আমরাও সংযম দেখিয়েছি।”

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরে বাড়ানো হল ফারুক আবদুল্লার বন্দিত্বের মেয়াদ, ক্ষুব্ধ মমতা-সহ বিরোধীরা]

চলতি বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি। ভারত-পাকিস্তানের সীমান্তে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর বালাকোটে জইশের জঙ্গিঘাঁটিগুলোকে নিকেশ করতে বিমান হামলা (Balakot Air Strike)চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা বাহিনী। এই হামলা ঘিরে দুই প্রতিবেশী দেশের সম্পর্ক বেশ অবনতির দিকে গড়ায়। এমনকী সরাসরি যুদ্ধের পরিস্থিতির আশঙ্কাও করেছিলেন অনেকে। ভারতের সীমায় ঢুকে পড়া পাকিস্তানের বিমান ধাওয়া করতে গিয়ে বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান (Wing Commander Abhinandan Varthaman)কে আটকে রেখে সেই পরিস্থিতি আরও অনুকূল করে তুলছিল পাকিস্তান। তবে পরে আন্তর্জাতিক চাপের মুখে অভিনন্দনকে ছেড়ে দিয়ে কার্যত পিছু হঠে ইমরানের দেশ। শুধু জাতীয় রাজনীতিই নয়, বালাকোটের হামলা আন্তর্জাতিক স্তরেও বেশ তোলপাড় ফেলে দিয়েছিল।

চণ্ডীগড়ে সেনা সাহিত্য উৎসবের এক আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান বিএস ধানোয়া ইঙ্গিত দিলেন, সেই পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হতে পারত। কারণ, পাকিস্তানের দিক থেকে প্রত্যাঘাতের আঁচ পেয়ে দ্বিগুণ শক্তি নিয়ে ঝাঁপাতে প্রস্তুত ছিল ভারতের সেনাবাহিনী। এমনই জানিয়েছেন বিএস ধানোয়া। সেপ্টেম্বরে চাকরি থেকে অবসর নেওয়ার পর এই প্রথম জনসমক্ষে বালাকোট হামলা নিয়ে মুখ খুললেন প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান।

[আরও পড়ুন: CAA নিয়ে নয়া সংকট, আইনের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে বিজেপিরই জোটসঙ্গী]

তিনি বলেন, ”সুখোই ৩০, ব্রহ্মোস এসবই মাটিতে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত ছিল। তিন বাহিনীই আমাদের আশ্বস্ত করেছিল যে উত্তেজনার পারদ চড়লে, জবাব দিতে প্রস্তুত।” তবে শেষ পর্যন্ত সেসব সমরাস্ত্র ব্যবহারের প্রয়োজন হয়নি। পাকিস্তানের এফ-১৬ যুদ্ধবিমান ভারতীয় সীমান্তে ঢুকলেও, কোনও সেনাঘাঁটিতে আক্রমণ চালাতে ব্যর্থ হয়েছিল। তা নইলে হয়ত গোটা চিত্রটাই অন্যরকম হত। ধানোয়া আরও জানিয়েছেন, ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় নৃশংস জঙ্গি হামলার (Pulwama Attack) পর পাকিস্তানকে শিক্ষা দিতেই বালাকোটের বিমান হামলা। এর বেশি কিছু নয়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে