২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

কাশ্মীরে ‘সাজানো এনকাউন্টারে’ হত ৩, অভিযুক্ত জওয়ানদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার নির্দেশ সেনার

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 19, 2020 8:54 am|    Updated: September 19, 2020 9:14 am

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ১৮ জুলাই জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu and Kashmir) সোপিয়ানে তিনজন জঙ্গি সংঘর্ষে নিহত হয়েছিল বলে দাবি করে সেনা। কিন্তু অভিযোগ ওঠে, ওই সংঘর্ষ ভুয়ো (Fake Encounter), সাজানো। তা নিয়ে তদন্তের পর লড়াইয়ে জড়িত জওয়ানদের অভিযুক্ত করেছে সেনা কর্তৃপক্ষ (Indian Army)। অভিযুক্ত সেনা জওয়ানদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে।

সেনার ‘কোর্ট অফ এনকোয়ারি’ জানিয়েছে, তদন্তে প্রাথমিক ভাবে কিছু প্রমাণ মিলেছে যেখানে দেখা গিয়েছে আর্মড ফোর্সেস স্পেশাল পাওয়ার্স অ্যাক্ট (আফস্পা) লঙ্ঘন হয়েছে। শৃঙ্খলাভঙ্গের জন্য অভিযুক্ত জওয়ানদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছে সেনা। সেনা সূত্রে আরও জানানো হয়েছে, নিহতদের ডিএনএ রিপোর্ট এখনও হাতে আসেনি। তা ছাড়া তাঁদের সঙ্গে কোনও জঙ্গি যোগ ছিল কি না তা খতিয়ে দেখছে জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ। স্থানীয় বাসিন্দা ও নিহতদের পরিবারের দাবি, তারা মোটেও জঙ্গি ছিল না। সাজানো এনকাউন্টার (Encounter) ঘটিয়ে তাদের মারা হয়েছে।

[আরও পড়ুন : পৃথক পতাকা আর সংবিধান ছাড়া কোনও আলোচনা নয়, কড়া অবস্থান নাগা সংগঠনের]

গত ১৮ জুলাই অপারেশন আমশিপোরা-য় জঙ্গি সন্দেহে সেনার গুলিতে নিহত হন রাজৌরির বাসিন্দা ইমতিয়াজ আহমেদ, আবরার আহমেদ এবং মহম্মদ ইবরার। সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই তিন জনের ছবি ছড়িয়ে পড়তেই তাঁদের পরিবারের লোকেরা ওই যুবকদের শনাক্ত করেন। তাঁদের দাবি ছিল, কাজের খোঁজে সোপিয়ানে গিয়েছিলেন ওই তিন যুবক। ১৭ জুলাই থেকে তাঁদের সঙ্গে আর যোগাযোগ করা যায়নি। পর দিন সেনার গুলিতে মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই বিক্ষোভ শুরু হয়। ভুয়া সংঘর্ষে ওই যুবকদের মারা হয়েছে বলে দাবি ওঠে। এর পরই ‘কোর্ট অফ এনকোয়ারি’ গঠিত হয়।

[আরও পড়ুন : ক্রিকেটের প্রতি জম্মু–কাশ্মীরের তরুণদের উৎসাহ জোগানোর লক্ষ্যে এগিয়ে এলেন রায়না]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement