BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ক্রিকেটের প্রতি জম্মু–কাশ্মীরের তরুণদের উৎসাহ জোগানোর লক্ষ্যে এগিয়ে এলেন রায়না

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 18, 2020 10:56 pm|    Updated: September 18, 2020 11:33 pm

An Images

মাসুদ আহমেদ, শ্রীনগর:‌ করোনা আবহে দুবাইয়ে (Dubai) শুরু হচ্ছে IPL। কিন্তু টুর্নামেন্ট না খেলেই দেশে ফিরেছেন রায়না। মূলত পরিবারের কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন চেন্নাই সুপার কিংসের (‌Chennai Super Kings) তারকা ক্রিকেটার। তবে ক্রিকেটের সংসর্গ থেকে নিজেকে বেশিদিন দূরে সরিয়ে রাখতে পারলেন না। পূর্ব প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, জম্মু–কাশ্মীরের তরুণদের মধ্যে ক্রিকেটের প্রতি উৎসাহ বাড়ানোর কাজে লেগে পড়লেন সুরেশ রায়না (Suresh Raina)। শুক্রবার এই প্রসঙ্গেই দেখা করলেন জম্মু–কাশ্মীর পুলিশের ডিজি’র সঙ্গেও।

[আরও পড়ুন:‌ থিম সংয়ে ব্রাত্য কন্নড় ভাষা, আইপিএল শুরুর আগেই বিতর্কে কোহলির আরসিবি]

পড়শি পাকিস্তানের (Pakistan) সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের কারণে প্রায়ই উত্তপ্ত থাকে জম্মু–কাশ্মীর। সন্ত্রাসবাদীদের মূল লক্ষ্যই থাকে তরুণ প্রজন্ম। আর সেই প্রজন্মকেই ক্রিকেটের প্রতি আকৃষ্ট করে, তাঁদের মূলস্রোতে ফেরানোর উদ্যোগ আগেই নিয়েছিলেন সুরেশ। এই ইস্যুতে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের ডিজিপি দিলবাগ সিংকে চিঠি লিখে ওই এলাকার ক্রিকেটারদের সাহায্যের কথা আগেই জানিয়েছিলেন। সেই মতো শুক্রবার তাঁর সঙ্গে দেখা করলেন ২০১১ সালের বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের অন্যতম সদস্য। জানা গিয়েছে, এদিন দীর্ঘক্ষণ বৈঠকে করেন দু’‌জনে। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনাও হয়। বৈঠক যে ইতিবাচক, সেই ইঙ্গিতও মিলেছে।

[আরও পড়ুন:‌ আইপিএল ১৩: ভুরি ভুরি রান নয়, আমিরশাহীর তিনটি পিচই হতে পারে বোলারদের স্বর্গ]

এরপর জম্মু ও কাশ্মীর (Jammu And Kashmir) পুলিশের তরফে একটি টুইট করে এই বৈঠকের কথা জানানো হয়। এদিনের বৈঠকে রায়না এবং দিলবাগ সিং ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অনন্তনাগের (Anantanag) এসএসপি সন্দীপ চৌধুরি, মনোজ কুমার পন্ডিতও। সেখানে জম্মু-কাশ্মীরের তরুণ প্রজন্মকে ক্রিকেটমুখী করতে পুলিশ প্রশাসনকে একগুচ্ছ পরিকল্পনার কথা জানান রায়না।

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement