BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জ্যোতিহীন কংগ্রেস! ইস্তফা দিলেন সিন্ধিয়া, শীঘ্রই যোগ দেবেন বিজেপিতে

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 10, 2020 12:34 pm|    Updated: March 12, 2020 1:03 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যাবতীয় জল্পনার অবসান। কংগ্রেস থেকে ইস্তফা দিলেন দলের সাধারণ সম্পাদক তথা রাহুল গান্ধী এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর একসময়ের ঘনিষ্ঠ নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া (Jyotiraditya Scindia)। শীঘ্রই সদলবদলে বিজেপিতে যোগ দেবেন তিনি। এর ফলে একই সঙ্গে জোড়া ধাক্কা খেল কংগ্রেস। একদিকে যেমন মধ্যপ্রদেশের ক্ষমতা হাতছাড়া হতে চলেছে, অন্যদিকে তেমনই সিন্ধিয়ার মতো জনপ্রিয় নেতাকে হারাতে হচ্ছে।

Congress leader Jyotiraditya Scindia tenders resignation to Congress President Sonia Gandhi pic.twitter.com/GcDKu3BLw8

[আরও পড়ুন: থাবা বাড়াচ্ছে করোনা, মুজিবের জন্মদিনে বাংলাদেশ সফর বাতিল মোদির]

দীর্ঘদিন ধরেই মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথের (Kamal Nath) সঙ্গে অঘোষিত বিবাদ চলছিল সিন্ধিয়ার। গতকাল সেই বিবাদ প্রকাশ্যে চলে আসে। রাতারাতি সিন্ধিয়া-ঘনিষ্ঠ অন্তত ২০ জন বিধায়ক নিখোঁজ হয়ে যান। তারপর থেকেই জল্পনা চলছিল কংগ্রেস ছাড়তে চলেছেন তিনি। বিধায়কদের পাশাপাশি জ্যোতিরাদিত্যর (Congress) সঙ্গেও যোগাযোগ করা যায়নি কাল সারাদিন। রাতের দিকে দিল্লির বাসভবনে দেখা যায় তাঁকে। রাতেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে একপ্রস্ত আলোচনা করেন তিনি। আজ সকালে ফের যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে।

[আরও পড়ুন: মধ্যরাতে নাটক মধ্যপ্রদেশে, একসঙ্গে ২০ জন মন্ত্রীর ইস্তফাপত্র গ্রহণ কমল নাথের]

তারপর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহর বাড়িতেও যান তিনি। বিজেপির দুই শীর্ষ নেতার সঙ্গে দেখা করার পরই নিজের ইস্তফার কথা ঘোষণা করেন কংগ্রেসের বর্ষীয়ান নেতা। ইস্তফা দেওয়ার পর কংগ্রেস নেতা বলেন, ১৮ বছর পর নতুন করে শুরু করার সময় এসেছে। পরে অমিত শাহর হাত ধরে বিজেপি দপ্তরে যান তিনি।
সিন্ধিয়ার সঙ্গে আরও অন্তত ১৭ জন বিধায়ক কংগ্রেস ত্যাগ করেছেন। মধ্যপ্রদেশ বিধানসভা থেকেও ইস্তফা দিচ্ছেন তাঁরা। এই ১৭ জন বিধায়ক ইস্তফা দেওয়ায় মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেসের বিধায়কসংখ্যা কমে হল ১০০। অন্যান্য দল এবং নির্দলদের সমর্থন থাকলেও কমলনাথের সরকার বাঁচা একপ্রকার অসম্ভব। আপাতত সব মিলিয়ে মধ্যপ্রদেশ বিধানসভায় কংগ্রেসের শক্তি ১০৫। ২৩০ আসন বিশিষ্ট মধ্যপ্রদেশ বিধানসভায় ম্যাজিক ফিগার ১১৬। ১৭ জন বিধায়কের ইস্তফাপত্র গৃহীত হলে তা কমে দাঁড়াবে ১০৬-এ। এই মুহূর্তে বিজেপির হাতে রয়েছেন ১০৭ জন বিধায়ক। সুতরাং, খুব সহজেই মধ্যপ্রদেশে সরকার গড়ে ফেলতে পারবে বিজেপি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement