BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বায়ুসেনার প্রত্যাঘাতে নিকেশ কান্দাহার অপহরণ কাণ্ডের মূলচক্রী

Published by: Tanujit Das |    Posted: February 26, 2019 4:43 pm|    Updated: February 26, 2019 5:22 pm

 Kandahar plane hijacker killed in Indian strike

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মঙ্গলবার ভোররাতে ভারতীয় বায়ুসেনার সার্জিক্যাল স্ট্রাইকে কার্যত নির্বংশ হতে চলেছে জইশ প্রধান মাসুদ আজহার৷ সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, অধিকৃত কাশ্মীরের বালাকোট সেক্টরে ভারতের আতর্কিত হানায় খতম হয়েছে জইশ প্রধান মাসুদ আজহারের দাদা ইব্রাহিম আজহার৷ কান্দাহার বিমান অপহরণের অন্যতম মূলচক্রী ছিল এই জইশ নেতা৷ মৃত জঙ্গিদের মধ্যে রয়েছে মাসুদ আজহারের শ্যালক ইউসুফ আজহার। হানায় খতম হয়েছে কাশ্মীরের জইশ প্রধান মুফতি আজহার খান কাশ্মীরি। সেনার প্রত্যাঘাতে নিকেশ হয়েছে মাসুদের ভাই মৌলানা তালহা সইফ এবং জইশের শীর্ষ নেতা মৌলানা আম্মর৷

[‘দেশের ভার নিরাপদ হাতেই রয়েছে’, প্রত্যাঘাতের পর দেশবাসীকে বার্তা প্রধানমন্ত্রীর ]

জানা গিয়েছে, ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় ভারতীয় জওয়ানদের উপর পাক জঙ্গিদের হামলার পর থেকেই, মঙ্গলবারের প্রত্যাঘাতের প্রস্তুতি শুরু করে ভারত৷ পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতীয় গুপ্তচর সংস্থার যে সোর্সরা রয়েছেন তাঁদের কাজে লাগায় নয়াদিল্লি৷ গোয়েন্দা সূত্রে খবর, তাঁদের কাছ থেকেই জঙ্গি ক্যাম্পগুলির পুঙ্খানুপুঙ্খ বিবরণ পায় সেনা৷ তাঁরা জানতে পারেন, জঙ্গি ঘাঁটিগুলিতে অত্যাধুনিক একে ৪৭ রাইফেল, প্রচুর গ্রেনেড, বিস্ফোরক মজুত রাখা হয়েছে৷ সেমতো মঙ্গলবারের হামলার ব্লু-প্রিন্ট তৈরি করেন এয়ার চিফ মার্শাল বিএস ধানওয়া, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল এবং সেনার অন্য আধিকারিকরা৷

[পাকিস্তানের ত্রাস কারগিলের ‘হিরো’ মিরাজ, জেনে নিন বিমানটি সম্পর্কে ]

এদিনের সার্জিক্যাল স্ট্রাইকে নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছে বালাকোট, মুজফ্ফরাবাদ ও চাকোটিতে গড়ে ওঠা জইশ, লস্কর ও হিজবুলের জঙ্গি প্রশিক্ষণ ক্যাম্প৷ পাক অধিকৃত কাশ্মীরে জইশের অন্তত ৩টি কন্ট্রোল রুম উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু লঞ্চ প্যাডও। খতম হয়েছে প্রশিক্ষক ও কমান্ডার-সহ প্রায় সাড়ে তিনশো জঙ্গি৷ ইতিমধ্যে প্রকাশ্যে এসেছে পাক জঙ্গিঘাঁটির সেই সমস্ত ছবি, যেগুলিকে মঙ্গলবার ভোররাতে ধ্বংস করেছে বায়ুসেনা৷ ছবিতে দেখা যাচ্ছে, জঙ্গি ক্যাম্পগুলির ছাদে আমেরিকা, ব্রিটেন ও ইজরায়েলের জাতীয় পতাকা আঁকা থাকত৷ এবং সেই জাতীয় পতাকার উপর দিয়ে হাঁটাচলা করত জঙ্গিরা৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে