Advertisement
Advertisement

Breaking News

Kiren Rijiju

কলেজিয়াম বিতর্কের জের! কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রীর পদ থেকে সরানো হল কিরেন রিজিজুকে

২০২৪ লোকসভার আগে মন্ত্রিসভায় রদবদল।

Kiren Rijiju has been replaced as Union Law Minister | Sangbad Pratidin

ফাইল ফটো

Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:May 18, 2023 10:32 am
  • Updated:May 18, 2023 10:47 am

সোমনাথ রায়, নয়াদিল্লি: কলেজিয়াম নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়ার জের! কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রক থেকে সরিয়ে দেওয়া হল কিরেন রিজিজুকে। আইনমন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে অরুণাচলের সাংসদকে অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ ভূ-বিজ্ঞান মন্ত্রকের মন্ত্রী করা হল। আর রিজিজুর জায়গায় আইনমন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হলেন অর্জুন রাম মেঘওয়াল (Arjun Ram Meghwal)। সংস্কৃতি মন্ত্রকের পাশাপাশি আইনমন্ত্রকের অতিরিক্ত দায়িত্ব নেবেন তিনি।

উল্লেখ্য, বেশ কিছুদিন ধরেই সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) কলেজিয়াম নিয়ে নিয়মিত বিতর্কিত মন্তব্য করছিলেন রিজিজু। কিছুদিন আগে প্রধান বিচারপতিকে চিঠি লিখে তিনি দাবি করেছিলেন, বিচারপতিদের নাম সুপারিশ করার অধিকার কলেজিয়ামের (Collegium) থেকে কেড়ে নিয়ে দেওয়া উচিত কেন্দ্র সরকারকে। সেই সঙ্গে বলেন, ১৯৪৭ সালের পর আইনের একাধিক পরিবর্তন করা হয়েছে। কারণ একই নিয়ম চিরকাল ধরে চলতে পারে না। একটা সময়ের পর তা বদলাতে হয়। অর্থাৎ রিজিজু স্পষ্টতই কলেজিয়াম সিস্টেম তুলে দেওয়ার পক্ষে ছিলেন।

Advertisement

[আরও পড়ুন: আরিয়ান মাদক মামলায় সমীর ওয়াংখেড়েকে CBI সমন, গ্রেপ্তারিতে স্থগিতাদেশ আদালতের]

আইনমন্ত্রীর এই অবস্থানে আবার প্রবল আপত্তি ছিল শীর্ষ আদালতের কলেজিয়ামের। খোদ প্রধান বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় একাধিকবার এ নিয়ে নাম না করে রিজিজুকে কটাক্ষও করেছেন। এক কথায়, কলেজিয়াম নিয়ে সরাসরি কেন্দ্র এবং বিচারব্যবস্থার মধ্যে একটি সংঘাতের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। সেই বিতর্কে আবার যোগ দিয়েছিল বিরোধী শিবির। কলেজিয়াম বাতিলের উদ্যোগকে ‘অসাংবিধানিক’ এবং ‘একনায়কতন্ত্র প্রতিষ্ঠার চেষ্টা’ হিসাবে দেগে দেয় বিরোধী শিবির। প্রকাশ্যে বিচারব্যবস্থার সঙ্গে কেন্দ্রের এই বিবাদ জনমানসে নেতিবাচক বার্তা দিচ্ছিল। সম্ভবত সেটা বুঝতে পেরেই ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের আগে রিজিজুকে সরিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)।

Advertisement

[আরও পড়ুন: সোনিয়ার হস্তক্ষেপেই গোঁসা ভাঙল শিবকুমারের! কর্ণাটকে কুরসি কোন্দলে ইতি]

আবার রিজিজুকে সরানোর আরও একটা কারণ থাকতে পারে। কর্ণাটকের নির্বাচনে ভরাডুবির পর কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় যে রদবদল হতে পারে, সে ইঙ্গিত আগে থেকেই পাওয়া যাচ্ছিল। রিজিজুকে বদলে মেঘওয়ালকে আইনমন্ত্রকে আনা মন্ত্রিসভায় বৃহত্তর পরিবর্তনের সূচনা হতে পারে। তাছাড়া এ বছরের শেষে রাজস্থানেও নির্বাচন। সেদিক থেকেও মেঘওয়ালের পদন্নোতি তাৎপর্যপূর্ণ।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ