Advertisement
Advertisement
Chief Justice of India

ভারতের বিচারব্যবস্থা সবচেয়ে সুরক্ষিত, প্রধান বিচারপতির উদ্বেগ নিয়ে মন্তব্য রিজিজুর

প্রধান বিচারপতির উদ্বেগকে 'মতামত' বলে অভিহিত করেছেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী।

Kiren Rijiju opens up on CJI remarks about media trial | Sangbad Pratidin
Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:July 24, 2022 2:34 pm
  • Updated:July 24, 2022 2:34 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়া এবং সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এন ভি রামানা (NV Ramana)। বিচারপতিদের বিরুদ্ধে লাগাতার কুৎসা রটানোর ফলে তাঁদের বিচার করার আগে দু’বার ভাবতে হচ্ছে, এমন মন্তব্য করেছিলেন তিনি। সেই বক্তব্যের উত্তরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজিজু (Kiren Rijiju) বলেছেন, ভারতবর্ষেই বিচারব্যবস্থা সবচেয়ে সুরক্ষিত রয়েছে। স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন বিচারপতিরা।

শনিবার একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার নেতিবাচক প্রভাব নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন রামানা। তাঁর বক্তব্য প্রকাশ্যে আসার পরে কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রীর (Union Law Minister) তরফে বলা হয়, “ভারতের বিচারব্যবস্থা এবং বিচারপতিরা সম্পূর্ণভাবে নিরাপদ জায়গায় রয়েছে । আমি জোর গলায় বলতে পারি, পৃথিবীতে কোথাও ভারতের মতো স্বাধীন বিচারব্যবস্থা নেই।” তিনি আরও জানিয়েছেন, বিচারপতি আসলে সাম্প্রতিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে তাঁর মতামত জানিয়েছেন। রিজিজুর মতে, “সারা পৃথিবীতেই মিডিয়া ট্রায়ালের ঘটনা ঘটছে। সেই প্রেক্ষিতেই মন্তব্য করেছেন প্রধান বিচারপতি। কিন্তু তাঁর মন্তব্য নিয়ে আমি এখনই কিছু বলতে চাই না।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘হর ঘর তিরঙ্গা’ কর্মসূচি সফল করতে উদ্যোগ, জাতীয় পতাকা উত্তোলনের নিয়ম শিথিল করল কেন্দ্র]

প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক কালে বেশ কিছু মামলার রায় দেওয়া নিয়ে জনরোষের শিকার হয়েছেন শীর্ষ আদালতের (Supreme Court) বিচারপতিরা। নূপুর শর্মা-সহ নানা স্পর্শকাতর মামলার বিচার করেছেন বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণ করা হয়েছে বেশ কয়েকজন বিচারপতিকে। আগেও সেই বিষয়গুলি নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন রামানা। শনিবার একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে তিনি অভিযোগ করেন, নেটিজেনদের অর্ধেকই পক্ষপাতদুষ্ট। দেশের মানুষের এহেন ভূমিকার ফলে গণতন্ত্র পিছিয়ে পড়ছে।

Advertisement

আগামী মাসেই অবসর নিতে চলেছেন রামানা। তিনি বলেছেন, “ইলেকট্রনিক মিডিয়ার কোনও বিশ্বাসযোগ্যতা নেই। সেখানে যা কিছু প্রকাশ করা হয়, সেগুলো খুব তাড়াতাড়ি হারিয়েও যায়। বিচারপতিদের উদ্দেশ্য করে নেতিবাচক প্রচার চালানো হচ্ছে মিডিয়ার একাংশে। বিচারপতিরা কোনওরকম প্রতিক্রিয়া দেন না। কিন্তু সেই ব্যবহারকে তাঁদের দুর্বলতা বলে ধরে নেয় অনেকে।” সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে প্রধান বিচারপতির এই উদ্বেগ যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

[আরও পড়ুন: বিমানের মধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়া সহযাত্রীর চিকিৎসা, সুস্থ করে প্রশংসা কুড়োচ্ছেন রাজ্যপাল]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ