৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কুলভূষণের মুক্তির দাবি! পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ফের আন্তর্জাতিক আদালতে যাচ্ছে ভারত

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 3, 2020 8:45 am|    Updated: May 3, 2020 9:35 am

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আন্তর্জাতিক আদালতে মুখ পোড়ার পরও শিক্ষা হয়নি পাকিস্তানের। এবার ICJ-র নির্দেশও অমান্য করছে ইমরান খানের প্রশাসন। আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচার আদালত (International Court of Justice) কুলভূষণের সঙ্গে ভারতের কনসুলার অ্যাকসেসের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিলেও পাক প্রশাসন তাতে রাজি নয়। এখনও পর্যন্ত গুপ্তচরবৃত্তি ও সন্ত্রাসবাদ ছড়ানোর অভিযোগে ধৃত কুলভূষণ জাদবের (Kulbhushan Jadhav) সঙ্গে মাত্র একবার কনসুলার অ্যাকসেসের অনুমতি পেয়েছে ভারত। তারপর আর দেখা করতে দেওয়া হয়নি ভারতের প্রতিনিধিদের। তাঁর মুক্তির দাবিতে লেখা চিঠিরও জবাব দিচ্ছে না পাক সরকার। তাই বাধ্য হয়ে কুলভূষণের অ্যাকসেস পেতে ফের আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের দ্বারস্থ হতে পারে ভারত। এমনটাই জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিক আদালতে কুলভূষণের মামলা লড়া আইনজীবী হরিষ সালভে (Harish Salve)।

Bansuri Swaraj & Harish Salve

সালভে এক অনলাইন বক্তব্যে জানিয়েছেন, “আমরা বারবার পাকিস্তানের সাথে কথা বলছি, যাতে ওরা কুলভূষণকে মুক্তি দেয়। ওরা যদি বলে, মানবিকতার খাতিরে তাঁকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে তাতেও আমাদের আপত্তি নেই। আমরা যে কোনও মুল্যে ওকে ফেরত চায়। এটাকে পাকিস্তান নিজেদের সম্মানের লড়াই বানিয়ে ফেলেছে। আমরা বারবার চিঠি লিখছি। কিন্তু ওরা জবাব দিচ্ছে না। আমার মনে হয় আমরা এমন একটা জায়গায় পৌঁছে যাচ্ছি, যেখান থেকে আবার আন্তর্জাতিক আদালতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে হবে।” ভারত যদি ফের আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতে যায়, তাহলে তা যে পাকিস্তানের জন্য ভাল লক্ষণ হবে না সেটা বলাই বাহুল্য। কারণ ইতিমধ্যেই একবার ICJ-তে তীব্র তিরস্কারের মুখোমুখি হতে হয়ছে ইমরান প্রশাসনকে। এবারেও একই সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে।

[আরও পড়ুন: কবে আসবে করোনার প্রতিষেধক? উত্তর দিলেন বিল গেটস]

আন্তর্জাতিক আদালতের নির্দেশে কুলভূষণ যাদবকে একবার কনসুলার অ্যাকসেস দিতে বাধ্য হয়েছে পাকিস্তান। তাঁদের দাবি ‘কনসুলার রিলেশন সংক্রান্ত ভিয়েনা কনভেনশন, আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের রায় এবং পাকিস্তানের আইন মেনে’-এই কনসুলার অ্যাকসেস দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কুলভূষণের সঙ্গে দেখা করার জন্য ভারতীয় প্রতিনিধিদের উপর শর্ত চাপায় পাক সরকার। ইমরানের সরকারের বিদেশমন্ত্রক বলেছিল, ইসলামাবাদে ভারতীয় হাই কমিশনের প্রতিনিধিদের কুলভূষণের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় পাক প্রশাসনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন। আর গোটা পর্বটা সিসিটিভিতে ধরে রাখা হবে।

kulbhusan Ydav

[আরও পড়ুন: আঁধার কাটছে করোনার আঁতুরঘরে, চিনে গত ২৮ দিনে আক্রান্ত মাত্র এক!]

কিন্তু, এই শর্ত মেনে কুলভূষণের সঙ্গে দেখা করেননি ভারতীয় কূটনীতিকরা। উলটে আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলির মাধ্যমে চাপ বাড়ানো হয় পাকিস্তানের উপর।এর ফলে বাধ্য হয়ে ভারতের শর্ত মেনে কুলভূষণের সঙ্গে দেখা করার ব্যবস্থা করে তারা। ইসলামাবাদের একটি সাব জেলে কুলভূষণের সঙ্গে দেখা করেন পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতের ডেপুটি হাইকমিশনার গৌরব আলুওয়ালিয়া। এবং ওই বৈঠকের পর তিনি জানান, কুলভূষণের উপর প্রচণ্ড মানসিক চাপ দিচ্ছে পাকিস্তান। তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ স্বীকার করতে বলছে। পাকিস্তানের চাপের ফলে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন কুলভূষণ। এই বয়ানের পর আর কুলভূষণের সঙ্গে ভারতীয় কূটনীতিকদের দেখা করতে দেয়নি পাকিস্তান। এবার সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধেই ফের আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচার আদালতে যাচ্ছে ভারত।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement