BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

আঁধার কাটছে করোনার আঁতুরঘরে, চিনে গত ২৮ দিনে আক্রান্ত মাত্র এক!

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 2, 2020 4:24 pm|    Updated: May 2, 2020 4:24 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পেরিয়ে গিয়েছে ২৮ দিন। এর মধ্যে স্থানীয় স্তরে করোনা পজিটিভের সংখ্যা মাত্র ১। হ্যাঁ, এমনই আশার আলো নোভেল করোনা ভাইরাসের আঁতুরঘর চিনে। শনিবার চিনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশনের (National Health Commission) তরফে এমনই পরিসংখ্যান পাওয়া গিয়েছে। আর সেখানকার এহেন করোনা উন্নতির চিত্রে হুবেই-সহ বিভিন্ন প্রদেশে জারি থাকা জরুরি অবস্থাও অংশত তুলে নেওয়া হয়েছে।

চার, পাঁচ মাস হয়ে গেল খবরের শিরোনামে চিনের ইউহান প্রদেশ। এখানকার এক গবেষণাগার থেকেই COVID-19 মারণ জীবাণু গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে বলে অভিযোগের তিরে চিনের হুবেই প্রদেশের এই শহর। এমনকী এখানে করোনা পরিস্থিতি উন্নতির সঙ্গে সঙ্গেও গোটা বিশ্বের নজর ছিল এদিকেই। নজর ছিল এখানকার পরিসংখ্যানের দিকে। শনিবার ন্যাশনাল হেলথ কমিশন জানিয়েছে, এপ্রিল ৪ থেকে মে ২ তারিখ পর্যন্ত ইউহানে নতুন করে কোনও করোনা আক্রান্তের হদিশ মেলেনি। আর গোটা দেশে যে একজনের শরীরে সংক্রমণ মিলেছে, তিনি বাইরে থেকে এসেছিলেন বলে দাবি NHC’র।

[আরও পড়ুন: বাদ সাধল হোয়াইট হাউস, করোনা নিয়ে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সাক্ষী দেবেন না ফাউচি]

গোটা হুবেই প্রদেশে আক্রান্তের সংখ্যা কমতে থাকায় এই শহরকে জরুরি অবস্থার যে স্তরে রাখা হয়েছিল, তা কিছুটা শিথিল করা হয়েছে। আপাতত হুবেই দ্বিতীয় স্তরের জরুরি অবস্থা (second-highest emergency response level) জারি। একথা জানিয়েছেন হুবেইয়ের গভর্নর ইয়াং ইউনইয়ান। তবে এখনও আশঙ্কার কিছু আছে। বাইরে থেকে আসা বেশ কয়েকজনের মধ্যে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়লেও, তাঁদের কোনও উপসর্গ নেই। জ্বর, কাশি বা শ্বাসকষ্ট কিছুই নেই। আর এই বাহকদের থেকে সংক্রমণ ছড়াতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। যে বিষয়টিকে সামনে রেখে চিন করোনা পরিস্থিতি উন্নতির দাবি করছে, তা মূলত এই যে স্থানীয় স্তরে আর কোনও সংক্রমণ নেই। যা হচ্ছে, পুরোটাই বহিরাগতদের থেকে। যে কারণে এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে ইউহানের প্রবেশপথ খুলে দিলেও, পরে তা বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: মিলেছে করোনার দাওয়াই! রেমডিসিভির প্রয়োগে সবুজ সংকেত দিল আমেরিকা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement