BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনের মধ্যেই জাঁকজমক করে বিয়ে কুমারস্বামীর ছেলের, বিতর্কে কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: April 17, 2020 10:47 am|    Updated: April 17, 2020 12:02 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনের আতঙ্কেই বাজল সানাই। এক হচ্ছে চার হাত। শুনে অবাক হলেও এটাই সত্যি। বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হচ্ছেন কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কুমারাস্বামীর ছেলে নিখিল। লকডাউনের সমস্ত নিয়ম মেনেই এই বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হচ্ছে, বলেই দাবি কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারাস্বামীর। যদিও লকডাউনের মত ভয়ের আবহে কীভেবে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ছেলের বিয়ের আয়োজন করলেন সেই প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

বেঙ্গালুরু থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে রামানাগারা। সেখানের ফার্ম হাউসে অভিনেতা নিখিলের বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করলেন বাবা তথা কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কুমারাস্বামী। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবেগৌড়ার নাতি তথা অভিনেতা নিখিল বিয়ে করছেন কর্নাটকের প্রবীণ কংগ্রেস নেতা এম কৃষ্ণাপ্পার নাতনী রেভাথিকে।

তবে লকডাউনের মাঝে কিনা যেখানে ছেদ পড়েছে জনসাধারণের জীবনে সেখানে সমাজের একজন দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে কী করে ছেলের বিয়ের আয়োজন করলেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে রাজনৈতিক মহলে। তবে লকডাউনের নিয়ম মেনেই নাকি হবে এই বিয়ের অনুষ্ঠান। এমনটাই দাবি কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর। তাই বেঙ্গালুরু থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে গিয়ে রামানাগারার ফার্ম হাউসে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ঘোষণা করা হয়েছে এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতদের মাস্ক পরে আসতে হবে। অনুষ্ঠান বাড়িতে থাকবে চিকিৎসক-সহ একটি মেডিক্যাল টিম। তাঁরা আমন্ত্রিতদের শারীরিক পরীক্ষা করে তবেই ঢুকতে দেবেন অনুষ্ঠানে। এই ফার্ম হাউসে থাকছে স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা, ডিকন্টামিনেশন বুথ (Decontamination Booths)। জানা গিয়েছে, অনুষ্ঠানে ৭৫ জনকে আমন্ত্রিত করা হয়েছে। ১০ ফেব্রুয়ারি ছেলের আশীর্বাদের অনুষ্ঠান শেষে মহাসমারোহে বিয়ের অনুষ্ঠান করার কথাও ঘোষণা করাছিলেন কুমারাস্বামী। কিন্তু করোনা আবহে সেই অনুষ্ঠানের সমারোহে ছেদ টেনে শুধুমাত্র কয়েকজন আত্মীয়কে নিয়ে ছেলের বিয়ে সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন:সুরাহা র‌্যাপিড টেস্টেই, কেরলের পথে হেঁটে করোনাকে জব্দ করা শুরু রাজ্যে]

কুমারাস্বামী জানান, “অনেক আগের থেকে বিয়ের দিন-ক্ষণ স্থির হয়ে যাওয়ার তা পরিবর্তন করা সম্ভব হয়নি। তাই খুবই সামান্য আয়োজন করা হয়েছে বিয়েতে। কয়েকজন আত্মীয়কে নিয়েই এই অনুষ্ঠান করা হবে। বিয়েতে লকডাউনের সব নিয়ম মানা হবে।” বিয়ের অনুষ্ঠানের আগেই বর্তমানে কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পার কাছে থেকে অনুমতি নিয়েছেন জনতা দলের প্রধান। পাশাপাশি লকডাউনের সমস্ত বিধি নিষেধ মেনেই এই অনুষ্ঠান সম্পন্ন হবে সেই মর্মেই এই অনুমতি পাওয়া গিয়েছে বলে জানা যায়। প্রসঙ্গত, লকডাউনের আবহে কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুয়াপ্পা এর আগেও ২২ মার্চ আরেকটি বিয়ের অনুষ্ঠানের অনুমতি দিয়েছিলেন। তাই লকডাউনের নিয়ম মেনে অভিনেতা নিখিলের বিয়েতে আপত্তি করেননি মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা।

[আরও পড়ুন:চাপে পড়ে সুর বদল, বাড়িতেই রমজান পালনের বার্তা বদরুদ্দিনের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement