BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ৪ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

আদালতের চাপ! কুণাল কামরার উপর নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ কমাল ইন্ডিগো

Published by: Paramita Paul |    Posted: February 27, 2020 3:04 pm|    Updated: February 27, 2020 9:33 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কুণাল কামরার উপর জারি হওয়া নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ কমালো ইন্ডিগো বিমান সংস্থা। আপাতত তিন মাসের জন্য কমেডিয়ানের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি রাখল তাঁরা। এর আগে তাঁর বিমান সওয়ারির উপর ছয়মাসের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। এবার সেই  নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ তিনমাস কমানো হল। মনে করা হচ্ছে আদালতের ‘চাপে’ই তড়িঘড়ি এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ন’টা নাগাদ অসামরিক বিমান পরিবহণ নিয়ন্ত্রক সংস্থার অভ্যন্তরীণ কমিটি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে বিচারক নবীন চাওলাকে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, কুণাল কামরা অর্ণব গোস্বামীর একটি ভিডিও শেয়ার করেন। ভিডিওয় দেখা যায় কানে হেডফোন দিয়ে বসে রয়েছেন অর্ণব। আর তার পাশে দাঁড়িয়ে ক্রমাগত কথা বলে যাচ্ছেন কমেডিয়ান কুণাল কামরা। ভিডিওয় অর্ণবকে একাধিক প্রশ্ন করতে দেখা যায় কুণালকে। এমনকী, অর্ণবকে তিনি ‘কাপুরুষ’ বলেও সম্বোধন করেন। তবে  সেদিন ঠিক কী ঘটেছিল, সম্প্রতি একটি টুইটে সেকথা জানান তিনি। বলেন, বিমানে তিনি অর্ণব গোস্বামীকে দেখে তাঁর সঙ্গে কথা বলতে চান। কিন্তু তিনি ফোনে ব্যস্ত ছিলেন বলে অপেক্ষা করেন কুণাল। অর্ণবের সাংবাদিকতা নিয়ে তিনি কথা বলতে চাইছিলেন। কিন্তু অর্ণব কথা বলতে চাননি। এমনকী, অর্ণব তাঁকে মানসিকভাবে অসুস্থ বলেন বলেও অভিযোগ করেন কুণাল।

[আরও পড়ুন : মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫, দিল্লির পরিস্থিতি নিয়ে ফের বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী]

এই ঘটনার পর কুণাল অর্ণবের পাশে দাঁড়িয়ে কথা বলতে শুরু করেন ও ভিডিও করেন। অর্ণব যেভাবে সঞ্চালনা করেন, সেভাবেই তিনি কথা বলছিলেন বলে দাবি করেন কুণাল। এর কিছুক্ষণ পর বিমানকর্মীরা তাঁকে নিজের জায়গায় গিয়ে বলতে বলেন। সেই নির্দেশ তিনি মেনে নেন। যদি কারওর অসুবিধা হয়, তাই বিমানের সমস্ত যাত্রী, কর্মী ও পাইলটের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন বলেও জানিয়েছেন কুণাল কামরা। এরপরেই ‘শাস্তির” মুখে পড়েন কুণাল।

[আরও পড়ুন : কেন্দ্র ও দিল্লি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ, রাষ্ট্রপতির কাছে ‘রাজধর্ম’ পালনের আবেদন কংগ্রেসের]

ইন্ডিগোর তরফে কুণাল কামড়ার উপর ছয়মাসের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। এদিকে এয়ার ইন্ডিয়া, স্পাইসজেট ও গো-এয়ারও অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। কুণাল কামরার উপর নিষেধাজ্ঞা জারিকে টুইট করে সমর্থন করেছিল DGCA। এর পরেই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন ওই কমেডিয়ান। পালটা অভিযোগ করেছিলেন, তার মামলায় নির্দিষ্ট আইন মানেনি বিমান সংস্থাগুলি। এমনকী যে বিমানে তাঁর বিরুদ্ধে অভব্যতার অভিযোগ উঠেছে, সেই বিমানচালক অবধি তাঁর বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ দায়ের করেননি। তারপরেও তা নিয়ে বুধবার এই নিয়ামক সংস্থাকে নোটিস পাঠায় দিল্লি হাই কোর্ট। তারপরেই বৃহস্পতিবার শাস্তি কমানোর কথা ঘোষণা করা হল।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement