BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

গালওয়ানের লড়াইয়ে বন্দি ৩ মেজর-সহ দশ ভারতীয় জওয়ানকে মুক্তি দিল চিন

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: June 19, 2020 1:13 pm|    Updated: June 19, 2020 1:14 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ভয়াবহ সংঘর্ষের তিনদিন পর বন্দি ভারতীয় জওয়ানদের মুক্তি দিল চিন। লাগাতার চাপের মুখে বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনজন মেজর ও একজন লেফটেন্যান্ট কর্নেল-সহ ১০ ভারতীয় সেনাকে ইন্ডিয়ান আর্মির হাতে তুলে দিল লাল ফৌজ।

[আরও পড়ুন: ‘লাদাখ প্রথম আঙুল, বাকি চারটির দিকেও এগিয়ে আসছে চিন’, সতর্ক করলেন তিব্বতি নেতা]

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম ‘The Hindu’ জানিয়েছে, বুধবার চিন ও ভারতের মধ্যে হওয়া মেজর জেনারেল স্তরের বৈঠকে জওয়ানদের মুক্তির বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়। তারপরই বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটা নাগাদ ১০ জন ভারতীয় সৈনিককে মুক্তি দেয় চিনা ফৌজ। এদিকে, সেনা আগেই জানিয়েছে সংঘর্ষে কোনও জওয়ান নিখোঁজ হননি। বিশ্লেষকদের মতে, জওয়ানদের মুক্তি নিয়ে বৈঠকে চিনের উপর রীতিমতো চাপ সৃষ্টি করে ভারত। পরিস্থিতি যাতে আরও খারাপের দিকে না যায়, তাই বন্দিদের মুক্তি দিয়ে দেয় চিনের সেনা।

উল্লেখ্য, বিদেশমন্ত্রকের তরফে জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুপক্ষের মধ্যে আলাপ-আলোচনা চলছে। দুপক্ষের তরফে শান্তি বজায় রাখা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। তবে প্ররোচনা দিলে ভারত তার যোগ্য দেবে। প্রসঙ্গত, সোমবার লাদখে ভারত ও চিনের সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষের জেরে ২০ জন ভারতীয় সেনা শহিদ হয়েছেন। ওদিকে সংবাদসংস্থা এএনআই জানায় যে, ক্ষতি এড়াতে পারেনি চিনও। ওই সংঘর্ষে সেদেশে হতাহত কমপক্ষে ৪৩ জন জওয়ান। বুধবার কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই-কে ফোনে বলেন, চিনা সেনারা পূর্ব পরিকল্পিতভাবেই পদক্ষেপের ফলেই ওই পরিস্থিতি পরিস্থিতি তৈরি হয়।

এদিকে, গালওয়ান নিয়ে মোদি সরকারের উপর লাগাতার চাপ বাড়াচ্ছে কংগ্রেস। রাতের অন্ধকারে জওয়ানদের নিরস্ত্র অবস্থায় চিনা ফৌজের সামনে পাঠানো হয়েছল বেল অভিযোগ তোলেন রাহুল গান্ধী। যদিও কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতির সেই দাবি নস্যাৎ করে বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর সাফ জানিয়েছেন, সীমান্তে মোতায়েন জওয়ানদের কাছে সব সময় অস্ত্র থাকে। তাঁদের কখনওই নিরস্ত্র অবস্থায় মোতায়েন করা হয় না।

[আরও পড়ুন: চিনের সঙ্গে যুদ্ধের আবহে ৩৩টি যুদ্ধবিমান কিনতে চলেছে ভারত]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement