১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বাস্তবায়নে অস্বাভাবিক দেরি, বুলেট ট্রেন প্রকল্পের খরচ বাড়তে পারে বিপুল হারে

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 31, 2022 10:51 am|    Updated: July 31, 2022 10:51 am

Land acquisition delay to escalate cost of bullet train project | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার মার এবং সেই সঙ্গে দোসর জমি-জট। ভারতের প্রথম বুলেট ট্রেন প্রকল্প এখন অথৈ জলে। পরিস্থিতি এমনই যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) স্বপ্নের এই প্রকল্প নাকি ৫ বছর পর্যন্ত পিছিয়ে যেতে পারে। যে প্রকল্প ২০২৩ সালে শেষ হওয়ার কথা ছিল, সেটা কিনা শেষ হতে পারে ২০২৮ সালে গিয়ে। যার জেরে বিপুল হারে বাড়তে পারে এই প্রকল্পের খরচ।

রূপায়ণে বিলম্বের কারণে দেশের প্রথম বুলেট ট্রেন প্রকল্পের খরচ ১.৬ লক্ষ কোটি টাকা পার করে যাবে। এমনটাই মনে করছেন সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলি। আহমেদাবাদ থেকে মুম্বই হাই-স্পিড ট্রেন প্রকল্পে দেরি হওয়ার প্রধান কারণ জমি অধিগ্রহণে সমস‌্যা ও মাঝে দু’বছর কোভিড-এর জন‌্য কাজ বন্ধ হয়ে থাকা। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে মুম্বই-আমেদাবাদ ৫০৮ কিমি দীর্ঘ পথে বুলেট ট্রেন চালানোর উদ্যোগ শুরু হয়। সেইসময় প্রকল্পের জন‌্য খরচ ধরা হয়েছিল ১.০৮ লক্ষ কোটি টাকা। কিন্তু, কাজে বিলম্বের কারণে সেই খরচ অনেকটাই বেড়ে যাবে। প্রাথমিক হিসাবে জিএসটি-ছাড়া ১.৬০ লক্ষ কোটি টাকার বেশি।

[আরও পড়ুন: এবার নিশানায় সঞ্জয় রাউত, শিব সেনা সাংসদের বাড়িতে সিআরপিএফ নিয়ে হানা ইডির]

মুম্বই থেকে আহমেদাবাদের মধ্যেকার ৫০৮ কিলোমিটার লম্বা এই বুলেট ট্রেন (Bullet train) প্রকল্পের কাজ হওয়ার কথা জাপান থেকে ৮০ শতাংশ ঋণ নিয়ে। জাপান সরকারের প্রতিশ্রুতিমতো মাত্র ০.১ শতাংশ সুদ এবং ১৫ বছরের মোরাটরিয়ামে এই ঋণ পাওয়ার কথা ভারতের। জাপানের সাহায্যে হওয়া এই প্রকল্পটি সম্পন্ন হওয়ার কথা সম্পূর্ণ জাপানি প্রযুক্তিতে এবং জাপানি সংস্থাগুলির মাধ্যমে।

[আরও পড়ুন: ঝাড়খণ্ডের কং বিধায়কদের গাড়িতে উদ্ধার ৪৯ লক্ষ, সরকার ফেলতে টাকা দিয়েছে BJP, দাবি হাই কম্যান্ডের]

কিন্তু এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, এই প্রকল্পে মাটির তলা দিয়ে যে ২১ কিলোমিটার লম্বা লাইন হওয়ার কথা, সেই ২১ কিলোমিটার লাইন তৈরিতে জাপানি সংস্থাগুলি আগ্রহ দেখাচ্ছে না। তাছাড়া করোনার জন্য গোটা বিশ্বের অর্থনীতিই ধাক্কা খেয়েছে। যে কারণে বাড়ছে জিনিসপত্রের দাম। এই প্রকল্পের খরচ বাড়ার ক্ষেত্রে সেটিও অন্তরায় হয় দাঁড়িয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে