২১ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

চাঁদের মাটিতে নামল শীতল রাত, বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগের সব আশা শেষ

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 21, 2019 11:03 am|    Updated: September 21, 2019 11:04 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শেষ ১৪ দিনের মেয়াদ। চাঁদের মাটিতেই হয়তো চিরনিদ্রায় চলে গেল ল্যান্ডার বিক্রম। শনিবারই চাঁদের মাটিতে পুরোপুরি রাত নেমে এসেছে। সেই সঙ্গে তাপমাত্রাও কমতে কমতে নেমে এসেছে শূন্য ডিগ্রির প্রায় ২০০ সেলসিয়াস নিচে। আগামী ১৪ দিন চাঁদের মাটিতে এই কনকনে ঠাণ্ডার রাতই থাকবে। টানা ২ সপ্তাহ এত শীতল পরিবেশে বেঁচে থাকা বিক্রমের পক্ষে সম্ভব নয়। তাই, ধরেই নিতে হবে ল্যান্ডার বিক্রম হয়ত অকাল-সমাধিতে চলে গেল।

[আরও পড়ুন: এখনও সাড়া মেলেনি বিক্রমের, পাশে থাকার জন্য সকলকে ধন্যবাদ ইসরোর]

নাসার অরবিটার চাঁদের মাটিতে বিক্রমের ছবি তুলতে না পারার পরই মোটামুটি পরিষ্কার হয়ে গিয়েছিল বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগের আর কোনও আশা নেই। এবার সেই আশঙ্কাতেই একপ্রকার শিলমোহর পড়ে গেল। চাঁদের মাটিতে নেমে এসেছে শীতল রাতের অন্ধকার। রাত নেমে যাওয়ার পর বিক্রমের সঙ্গে আর যোগাযোগ সম্ভব নয়, সেকথা আগেই জানানো হয়েছিল ইসরোর তরফে। আসলে, ল্যান্ডার বিক্রম এবং রোভার প্রজ্ঞানের আয়ুই ছিল ১৪ দিন। যা আজই শেষ হচ্ছে। আজ থেকেই চাঁদের মাটিতে নামছে রাত। চাঁদের মাটিতে দিনের আর রাতের তাপমাত্রার আকাশ-পাতাল ফারাক। দিনের বেলায় যেখানে তাপমাত্রা ১৮৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত সেখানে রাতের তাপমাত্রা নেমে যায় -২০০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। বিক্রমের যন্ত্রাংশের এই বেশি তাপমাত্রায় খোলার কথা ছিল। দিনের বেলায় চাঁদের তাপমাত্রা বেশি থাকায় সক্রিয় হয়ে ওঠার কথা ছিল বিক্রমের। কিন্তু, ল্যান্ডিংয়ের সময় বিক্রমের ব়্যাডার ভেঙে যাওয়ায় তা সম্ভব হয়নি। এবার রাতে তাপমাত্রার অধঃপতনের ফলে সেই সম্ভাবনা আর একেবারেই রইল না।

[আরও পড়ুন: নাসার মহাকাশচারীকে ফোন করে ল্যান্ডার বিক্রমের খোঁজ নিলেন ব্র্যাড পিট]

গত ৭ সেপ্টেম্বর চাঁদের মাটিতে সফট ল্যান্ডিং হওয়ার কথা ছিল বিক্রমের। কিন্তু, সফট ল্যান্ডিংয়ের সময় শেষ মুহূর্তে ইসরোর নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় বিক্রম। তাঁর সঙ্গে আর কোনওরকমভাবে যোগাযোগ করা যায়নি। পরে চন্দ্রযানের অরবিটারের মাধ্যমে তাঁর থার্মাল ইমেজ পাওয়া যায়। জানা যায়, নির্ধারিত লক্ষ্যের মাত্র ৫০০ মিটার দূরে হার্ড ল্যান্ডিং হয়েছে বিক্রমের। তারপর থেকেই ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগের আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরো। কিন্তু, কোনওভাবেই যোগাযোগ সাধন সম্ভব হয়নি। শনিবার সরকারিভাবে ল্যান্ডার বিক্রমের আয়ু শেষ হল।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement