BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভারতের পালটা মারে সীমান্তের ওপারে বাড়ছে হতাহত, এখনও পর্যন্ত ১১ পাক সেনার মৃত্যু!

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: November 14, 2020 10:37 am|    Updated: November 14, 2020 10:37 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিনা প্ররোচনায় যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করার ফল হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে পাকিস্তান (Pakistan)। ভারতীয় সেনার পালটা মারে সীমান্তের ওপারে বাড়ছে হতাহতের সংখ্যা। সেনা সূত্রের খবর, উরি (Uri) সেক্টরে পাক সেনার বিনা প্ররোচনায় গুলির যোগ্য জবাব দিয়েছে ভারত। যার জেরে এখনও পর্যন্ত ১১ জন পাক সেনার মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১৬ জন পাক সেনা জওয়ান।

গতকাল দিনভর সীমান্তরেখা বরাবর উরি এবং গুরেজ সেক্টরে চলেছে দু’পক্ষের গোলাগুলি। যাতে ভারতের ৫ নিরাপত্তারক্ষী শহিদ হয়েছেন। এদের মধ্যে ৪ জন ভারতীয় সেনার জওয়ান এবং একজন বিএসএফের (BSF) সাব ইন্সপেক্টর। সেই সঙ্গে ভারতের ৩ সাধারণ নাগরিকেরও মৃত্যু হয়েছে। উরি সেক্টরে দুজন এবং গুরেজ সেক্টরে এক নাগরিকের প্রাণ গিয়েছে। সূত্রের খবর, দিওয়ালির আগে অশান্তি পাকানোর লক্ষ্যে এবং জঙ্গিদের অনুপ্রবেশের মদত দিতে শুক্রবার দিনভর সীমান্তের ওপার থেকে শেলিং করা হয়, মর্টার ছোঁড়া হয়। পাক সেনার এই উদ্ধত আচরণের যোগ্য জবাব দিয়েছে ভারত।

[আরও পড়ুন: যোগীর রাজ্যে সাংবাদিকের রহস্যমৃত্যু, খুনের দায়ে কাঠগড়ায় ২ পুলিশকর্মী]

সেনা সূত্রের খবর, ভারতীয় সেনার (Indian Army) পালটা মারে গতকাল রাত পর্যন্ত ১১ জন পাক সেনার প্রাণ গিয়েছে। যে ১৬ জন আহত হয়েছেন, তাঁদের মধ্যেও কারও কারও অবস্থা আশঙ্কাজনক। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে উদ্বিগ্ন ইসলামাবাদ পাকিস্তানে ভারতের দায়িত্বপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর, সেদেশের বিদেশমন্ত্রক এই ঘটনার দায় পুরোপুরি ভারতের উপর চাপিয়ে দয়াদিল্লিকে সংযত হওয়ার বার্তা দিতে পারে। পাকিস্তানের দাবি, ভারতই নাকি যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করছে। সব মিলিয়ে দিওয়ালির সকালে সীমান্তের পাশাপাশি দু’দেশের কূটনীতিও সরগরম।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement