৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

অরুণাচলে হঠাৎই কালো হয়ে উঠছে নদীর জল, ভাসছে মরা মাছ, কাঠগড়ায় চিন!

Published by: Biswadip Dey |    Posted: October 30, 2021 7:54 pm|    Updated: October 30, 2021 8:30 pm

Locals blame China after Arunachal Pradesh river turns black, thousands of fish die। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় সীমান্তে লাগাতার সেনা বাড়িয়েই চলেছে বেজিং। সেই সঙ্গে তৈরি করছে সামরিক ঘাঁটিও। সীমান্তে এই উত্তেজনার মধ্যেই শনিবার অরুণাচল প্রদেশে (Arunachal Pradesh) নদীর জল আচমকাই কালো হয়ে যাওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল। কেবল নদীর জলের রং বদলে যাওয়াই নয়, সেই সঙ্গে নদীতে ভেসে উঠতে দেখা গেল প্রচুর মরা মাছও। স্থানীয়দের অভিযোগ, এর পিছনেও রয়েছে চিন (China)!

ঠিক কী হয়েছে? এদিন সকালে দেখা যায় অরুণাচল প্রদেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নদী কেমংয়ের জল হয়ে গিয়েছে কালো। ভেসে উঠছে কাতারে কাতারে মরা মাছ। ইতিমধ্যেই প্রশাসনের তরফে নির্দেশিকা জারি করে স্থানীয়দের ওই মাছ না খেতে বলা হয়েছে।পাশাপাশি নদীর জলও খেতে নিষেধ করে দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: কয়েক দশক রাজনীতির কেন্দ্রে থাকবে বিজেপি? প্রশান্ত কিশোরের মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন মমতা]

কিন্তু কেন এমন কালো হয়ে গেল নদীর জল? এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত কোনও কারণের কথা জানা যায়নি। তবে স্থানীয়দের অভিযোগ এর পিছনে রয়েছে চিনের ভূমিকা। সেপ্পা গ্রামের অধিবাসীদের অভিযোগ, সীমান্ত জুড়ে নানা রকম নির্মাণকাজ চালাচ্ছে বেজিং। আর সেই কারণেই প্রচুর পরিমাণে অদ্রবীভূত পদার্থ মিশে গিয়ে জলের ওই অবস্থা হয়েছে। বিষাক্ত হয়ে গিয়েছে জল। জলে অক্সিজেনের অভাবের কারণেই মারা গিয়েছে মাছগুলি।

সেপ্পার বিধায়ক টাপুক টাকু অরুণাচল প্রশাসনের কাছে আরজি জানিয়েছেন, দ্রুত এই ঘটনার তদন্ত করার জন্য। অবিলম্বে বিশেষজ্ঞদের এলাকা পরিদর্শনে আসার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি। সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় গোটা বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি জানিয়েছেন, এমন ঘটনা এর আগে কখনও ঘটেনি এই এলাকায়। যদি আরও কয়েকদিন লাগাতার এই ধরনের ঘটনা ঘটতে থাকে, তাহলে অবিলম্বেই নদীর জীবজগতের উপরে বিরাট প্রভাব পড়বে।

[আরও পড়ুন: অভিষেককে আটকানোর চেষ্টা? বাংলা থেকে ত্রিপুরায় গেলে RT-PCR রিপোর্ট বাধ্যতামূলক]

প্রসঙ্গত, ভারতীয় সীমান্তে চিনের সক্রিয়তায় উদ্বিগ্ন প্রশাসন। বেজিং সেনা বাড়িয়েছে নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন এলাকায়। তৈরি করেছে একাধিক সামরিক ঘাঁটি। পালটা প্রস্তুতিতে ভারতীয় সেনাও। গত বছরের জুনে চিনা আগ্রাসনের পর থেকে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের যে অবনতি হয়েছে, তা এখনও অব্যাহত রয়েছে। কিছু কিছু এলাকা থেকে সেনা সরিয়েও বেজিং ফের অন্যত্র সেনা সমাবেশ করায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে