Advertisement
Advertisement
Lok Sabha 2024

কারও নাম করে আক্রমণ নয়, চব্বিশের লড়াইয়ে ভাবমূর্তি বদলের চেষ্টায় মোদি

এবার লোকসভায় ঝুঁকি নিতে নারাজ প্রধানমন্ত্রী।

Lok Sabha 2024: Narendra Modi stopped name calling in campaign
Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:March 6, 2024 7:33 pm
  • Updated:March 6, 2024 7:34 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একটা সময় তাঁকে বিরোধীদের নাম করে করে কটাক্ষ করতে শোনা যেত। বিরোধী শিবিরের শীর্ষনেতাদের নামের বদলে ব্যবহার করতেন অম্লমধুর সব বিশেষণ। তাতে একদিকে যেমন রসবোধ থাকত, তেমনি থাকত শ্লেষও। কিন্তু চব্বিশের লড়াইয়ে বিরোধীদের নাম করে আক্রমণ করা, বা তাঁদের নামের বদলে ওই বিশেষ বিশেষণগুলি সেভাবে ব্যবহার করতে শোনা যাচ্ছে না মোদিকে।

২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রীর মুখে বারবার শোনা গিয়েছে ‘দিদি ও দিদি’ কটাক্ষ। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করতে তিনি বারবার ব্যবহার করতেন ‘ভাতিজা’ শব্দটি। আর তার আগে রাহুল গান্ধীর জন্য বারবার ‘শাহাজাদা’, ‘নামদার’ শব্দগুলি ব্যবহার করতে শোনা যেত মোদিকে। কিন্তু চব্বিশের লোকসভার (Lok Sabha 2024) আগে আর সেই ব্যক্তি আক্রমণ, বা নাম ধরে কটাক্ষের পথে হাঁটছেন না প্রধানমন্ত্রী। বরং তিনি অনেক সংযত এবং সার্বিক আক্রমণে বিশ্বাসী।

Advertisement

[আরও পড়ুন: খেসারত দিতে হবে ৩ কোটি টাকা! পাকিস্তান থেকে সীমা হায়দরকে আইনি নোটিস প্রাক্তন স্বামীর]

২৪-এর লোকসভা ভোট প্রচারের প্রাথমিক পর্বে মোদি বাংলা, বিহার এবং দক্ষিণ ভারতের কয়েকটি রাজ্যে সভা করেছেন। তাৎপর্যপূর্ণভাবে এখনও কোনও নেতাকেই প্রধানমন্ত্রী সেভাবে নাম করে আক্রমণ করেননি। বুধবার বারাসতের সভা নিয়ে গত ছ’দিনে বাংলায় তিনটি সভা করলেন মোদি। এই ছ’বারে দু একবার ‘দিদি’ শব্দটি তাঁর মুখে শোনা গেলেও ‘ভাতিজা’ শব্দটি একবারও বলেননি। শুধু বাংলা নয়, অন্য রাজ্যেও একই পন্থা তাঁর। দিন দুই আগেই বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব মোদিকে (Narendra Modi) তাঁর ‘পরিবার’ না থাকা নিয়ে আক্রমণ করেছিলেন। মোদি এদিন সেই কটাক্ষের জবাব দিয়েছেন বটে, তবে নাম না করে। এদিন প্রধানমন্ত্রী বারাসতের সভায় বলেন,”ইন্ডি জোটের নেতারা আমার পরিবার নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন। ওঁরা জানতে চান, আমার পরিবার কোথায়? আমি বলি, এই যে মা-বোনেরা, দেশের ১৪০ কোটি মানুষ, এই হল আমার পরিবার।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: বাড়ল আশা কর্মী, অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের বেতন, ফেসবুকে বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

বিজেপি (BJP) সূত্রের দাবি, এবার লোকসভায় সম্পূর্ণ অন্য স্ট্র্যাটেজিতে এগোতে চাইছেন মোদি। ব্যক্তি আক্রমণের ঊর্ধ্বে উঠে তিনি চাইছেন সার্বিকভাবে ইন্ডিয়া জোটকে আক্রমণ করতে। কারণ অতীতে ব্যক্তি আক্রমণ করতে গিয়ে খেসারত দিতে হয়েছে বিজেপিকে। যার জলজ্যান্ত উদাহরণ ২০২১-এর বাংলার নির্বাচন। এবার লোকসভায় আর সেসব ঝুঁকি নিতে নারাজ প্রধানমন্ত্রী।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ