BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মহারাষ্ট্রের মন্ত্রিসভায় করোনার থাবা, আক্রান্ত পরিষদীয় মন্ত্রী ধনঞ্জয় মুণ্ডে

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 12, 2020 5:36 pm|    Updated: June 12, 2020 5:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার করোনার থাবা মহারাষ্ট্রের মন্ত্রিসভায়। আক্রান্ত হলেন পরিষদীয় মন্ত্রী (cabinet minister) ধনঞ্জয় মুণ্ডে (Dhananjay Munde )। মাত্র দুদিন আগেই তিনি একটি বৈঠকে যোগদান করেছিলেন বলে জানা যায়। ফলে করোনা আতঙ্কে কাঁটা হয়ে রয়েছেন মন্ত্রিসভার বাকি সদস্যরা।

মহারাষ্ট্রে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এই রোগের কবল থেকে রেহাই পাচ্ছেন না কেউই। ইতিমধ্যেই বাণিজ্য নগরীতে সংক্রমণের মাত্রা টেক্কা দিয়েছে চিন ও করোনার আঁতুরঘর ইউহানকে। ফলে সংক্রমণ বাড়তে বাড়তে তা পৌঁছেছে মহারাষ্ট্রের মন্ত্রিসভার অন্দরে। করোনায় আক্রান্ত হলেন ক্যাবিনেট মন্ত্রী ধনঞ্জয় মুণ্ডে। মাত্র দুদিন আগে তিনি মহারাষ্ট্রের উপ মুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ার (Ajit Pawar), স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপ (Rajesh Tope )-সহ অন্যান্য মন্ত্রীদের সঙ্গে এক ঘরে বসে বৈঠক করেন। তবে সেদিনের বৈঠকে সশরীরে উপস্থিত ছিলেন না মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। তিনি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেই বৈঠকে যোগ দেন। তবে সেদিনের বৈঠকে উপস্থিতি সকল মন্ত্রীদের সেল্ফ কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর দাবি উঠলে বেঁকে বসেন মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপ। তিনি বলেন, “বৈঠকে উপস্থিত সকল মন্ত্রীদের কোয়ারেন্টাইনে রাখার প্রয়োজন নেই। কারণ আমরা সকলেই সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বৈঠকে যোগ দিই। ICMR-এর গাইডলাইন মেনে সকলেই মাস্ক পরেই যোগদান করি। তাই কোনও মন্ত্রীদেরও অযথা আতঙ্কিত হয়ে করোনা পরীক্ষা করারও প্রয়োজন নেই।” এমনকি বৈঠকের পর কারও শরীরে করোনার কোনও উপসর্গ দেখা যায়নি বলে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপ।

[আরও পড়ুন:মিটল বেতন সমস্যা, ফুটবলারদের SMS করে বকেয়া দেওয়ার কথা জানালেন বাগান কর্তারা]

তাহলে প্রশ্ন উঠতেই পারে মন্ত্রী ও জনসাধারণের জন্য কি কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম আলাদা? সূত্রের খবর, চলতি সপ্তাহের প্রথমে ধনঞ্জয় মুণ্ডে এনসিপি-র ২১ তম প্রতিষ্ঠা দিবসে প্রধান দপ্তরে যান। বৃহস্পতিবার রাতেই মুণ্ডে-সহ ৬ দলীয় কর্মীর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ পাওয়া যায়। তারপর থেকেই আতঙ্ক ছড়ায় মন্ত্রিসভার অন্দরে। আপাতত মুম্বইয়ের ব্রিজ ক্যান্ডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন এই মন্ত্রী। কিন্তু স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কথা মেনে মন্ত্রিসভার বাকি কেউই এখনও সেল্ফ কোয়ারেন্টাইনে যাননি। তবে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আশ্বাসে বলীয়ান হওয়ার চেষ্টা করলেও মনে মনে প্রমাদ গুনছেন অনেকেই।

[আরও পড়ুন:কয়েদখানায় করোনার থাবা, ৩৩ হাজার বিচারাধীন বন্দির জামিন মঞ্জুর বাংলাদেশে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement