BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মিটল বেতন সমস্যা, ফুটবলারদের SMS করে বকেয়া দেওয়ার কথা জানালেন বাগান কর্তারা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: June 12, 2020 4:41 pm|    Updated: June 12, 2020 4:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনে বন্ধ ময়দানের ফুটবল। কিন্তু তার মধ্যেই চলতি মরশুম শুরুর আগে মোহনবাগান (Mohun Bagan) ফুটবলারদের বকেয়া বেতন মিটিয়ে দিতে চলেছেন ক্লাবকর্তারা। ক্লাবের চুক্তিবদ্ধ ফুটবলারদের এসএমএস করে দুই শীর্ষ মোহনবাগান কর্তা সচিব সৃঞ্জয় বোস (Srinjoy Bose) এবং অর্থসচিব দেবাশিস দত্ত জানিয়ে দিয়েছেন দুটি কিস্তিতে তাঁদের সমস্ত বকেয়া মিটিয়ে দেওয়া হবে। কবে বেতন দেওয়া হবে সেই কথাও উল্লেখ রয়েছে মেসেজে। কর্তারা জানিয়েছেন, ‘দুটো কিস্তিতে ফুটবলারদের ইনসেনটিভ এবং বকেয়া বেতন মিটিয়ে দেওয়া হবে। প্রথম কিস্তিতে ৫০ শতাংশ ৩০ জুনের মধ্যে মিটিয়ে দেওয়া হবে। আর দ্বিতীয় কিস্তিতে বাকিটা দেওয়া হবে ২০ জুলাইয়ের মধ্যে।’

পাশাপাশি সৃঞ্জয়বাবু ও দেবাশিসবাবু জানিয়েছেন, আই লিগ জয়ের প্রাইজ মানি এবং মরশুমের যাবতীয় ভরতুকি পাওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে ফুটবলারদের প্রস্তাবিত বোনাস দিয়ে দেওয়া হবে। প্রাইজ মানির বিষয়টি ফেডারেশনের (AIFF) কাছে বারবার তদ্বির করছেন বলে ফুটবলারদের মেসেজে জানিয়েছেন কর্তারা। মোহনবাগান কর্তারা চান না মরশুম শুরুর আগে এই নিয়ে ক্লাবের সঙ্গে ফুটবলারদের দূরত্ব তৈরি হোক। লকডাউনের জেরে বহু প্রতীক্ষিত আই লিগ জয়ের সেলিব্রেশন করতে পারেননি ফুটবলার থেকে সমর্থকরা। ট্রফি জয়ের পুরস্কার মূল্য ফুটবলারদের ইনসেনটিভ বোনাস হিসাবে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন বাগান কর্তারা। কিন্তু লকডাউনের জেরে সেসব স্থগিত রাখতে হয়েছিল। কিন্তু এবার ফুটবলারদের উদ্বেগ কাটিয়ে মেসেজ করে বেতন সমস্যার সমাধান করে দিলেন কর্তারা।

[আরও পড়ুন: করোনা উত্তর যুগে কোন পথে এগোবে রাজ্যের খেলাধুলা, রূপরেখা তৈরি করতে সভা ক্রীড়ামন্ত্রীর]

প্রসঙ্গত, দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণার পর থেকেই বন্ধ মোহনবাগান ক্লাব। তারও আগে অবশ্য স্থগিত করে দেওয়া হয়েছিল সমস্ত স্পোর্টস ইভেন্ট। বাকি ছিল আই লিগের কয়েকটি ম্যাচও। তবে তার আগেই চ্যাম্পিয়ন হওয়া নিশ্চিত করে ফেলেছিলেন ফ্রান গঞ্জালেসরা। লকডাউনের মধ্যেই মোহনবাগানকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন (AIFF)। তবে করোনা রুখতে লকডাউনের জেরে ট্রফি এখনও হাতে তোলা হয়নি ফুটবলারদের। বাকি রয়ে গিয়েছে সেলিব্রেশনও। এমনকী লকডাউনের জন্য এবার ছেদ পড়ে ঐতিহ্যেও। প্রতিবারের মতো পয়লা বৈশাখে এবার খুঁটিপুজোও করা যায়নি ধুমধাম করে।

[আরও পড়ুন: কবে শুরু হচ্ছে ভারতীয় ফুটবলের নতুন মরশুম? জানিয়ে দিল ফেডারেশন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement