৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘একজন জওয়ান শহিদ হলে ১০ জন শত্রুকে মারব।’ বৃহস্পতিবার মহারাষ্ট্রে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে এই হুঁশিয়ারিই দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। আগামী ২১ অক্টোবর মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচন হবে। রাজ্যের শাসন ক্ষমতা ধরে রাখার পাশাপাশি এবার বিধায়ক সংখ্যাও বাড়াতে চায় বিজেপি। তাই ভোট প্রচারে আগের থেকেও বেশি জোর দিয়েছে তারা। শত ব্যস্ততার মধ্যেও প্রধানমন্ত্রী থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সবাই রীতিমতো সময় দিচ্ছেন মহারাষ্ট্রে। বৃহস্পতিবার যেমন সাংগলি জেলায় জনসভা করতে আসেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

[আরও পড়ুন: অভিনব উদ্যোগ, ১৪০০ কিমি দীর্ঘ সবুজ দেওয়াল তৈরির পথে ভারত]

ভিড়ঠাসা জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘যদি একজন ভারতীয় জওয়ান শহিদ হন তাহলে ১০ জন শত্রুকে মারব। আজ পুরো বিশ্ব ভারতের এই মনোভাবের কথা জানে। আর এই ভাবমূর্তি তৈরি হয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বের জন্যই। তাঁর সরকারের আমলেই জাতীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও শক্তিশালী হয়ে উঠেছে। ২০১৬ সালের সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর বিশ্বের চোখে ভারতের ছবিই বদলে গিয়েছে। আজ গোটা পৃথিবীর মানুষ এই দেশকে অন্য চোখে দেখে।’

[আরও পড়ুন: অভিনব উদ্যোগ, ১৪০০ কিমি দীর্ঘ সবুজ দেওয়াল তৈরির পথে ভারত]

কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিলের পর পাকিস্তান ও বিরোধীরা অযথা জলঘোলা করার চেষ্টা করেছে বলেও অভিযোগ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। অন্য দেশগুলি এই বিষয়ে ভারতকে সমর্থন করলেও কংগ্রেস ও এনসিপি এর তীব্র বিরোধিতা করছে বলেও জানান। এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ভূস্বর্গ থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু, সংসদ ও বাইরে এর তীব্র বিরোধিতা করে কংগ্রেস ও এনসিপি। আমি চাই রাহুল গান্ধী ও শরদ পাওয়ার মহারাষ্ট্রের মানুষকে জবাব দিন, কেন তাঁরা ৩৭০ ধারা বাতিলের বিপক্ষে ছিলেন।’

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং