Advertisement
Advertisement
Train Accident

হাতে হাত রেখে চলন্ত ট্রেনের সামনে শুয়ে পড়লেন বাবা-ছেলে! মর্মান্তিক কাণ্ড মহারাষ্ট্রে

সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পড়েছে শিহরণ জাগানো ভিডিও।

Maharashtra: Holding hands, father, son lie in front of approaching train
Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:July 10, 2024 12:00 am
  • Updated:July 11, 2024 1:36 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অভাবের তাড়না, নাকি অন্য কোনও কারণ! জীবনযন্ত্রণা সইতে না পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন বাবা ও ছেলে। একসঙ্গে, হাতে হাত রেখে চলন্ত ট্রেনের সামনে শুয়ে পড়লেন তাঁরা। ছিন্নভিন্ন হয়ে গেল দেহ। মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটেছে মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) ভয়ন্ডর স্টেশনে।

মুম্বই থেকে ৩২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ভয়ন্ডর (Bhayander) রেল স্টেশন। এই স্টেশন অবস্থিত পালঘরে। সেখানেই স্টেশনের কাছে রেলট্র্যাকে এই দৃশ্য দেখা যায়। সোশাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ভাইরাল। তাতে দেখা যাচ্ছে, একে অপরের সঙ্গে কথা বলছেন বাবা ও ছেলে। ওই সময় তারা স্টেশনের প্লাটফর্মে হাঁটতে হাঁটতে যাচ্ছিলেন। তখন তাদের পাশ দিয়ে একটি ট্রেনও যাচ্ছিল। হেঁটে প্লাটফর্মের শেষ প্রান্তে যাওয়ার পর তারা দুজন রেললাইনে নামেন।

[আরও পড়ুন: ‘রাশিয়ার সঙ্গে বন্ধুত্ব কখনও মাইনাসে নামবে না’, মস্কোয় মন্তব্য মোদির]

রেললাইনে নামার পর যখন তারা দেখতে পান পাশের লাইন দিয়ে একটি ট্রেন আসছে, তখন সেখানে গিয়ে একসঙ্গে দুজন শুয়ে পড়েন। প্রায় সকলের সামনেই একে অপরের হাতে হাত রেখে। এর পর এক ভয়ঙ্কর দৃশ্য। ট্রেন চলে যেতেই উদ্ধার হল মৃতদহ দুটি। যাকে বলে হাসতে হাসতে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়া, সেই পথই যেন বেছে নিল ওই পিতাপুত্র। সোমবার সকাল ১০.৩০ মিনিট নাগাদ এই ঘটনাটি ঘটেছে। নিহতদের নাম জয় মেহেতা (৩৫) এবং তার বাবা হরিশ মেহেতা (৬০), দুজনেই নালাসোপারার বাসিন্দা।

[আরও পড়ুন: ত্রিশঙ্কু ভোটের ফল, ফ্রান্সে মুখ পুড়ল প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর]

তাঁদের আত্মহত্যার কারণ এখনও জানা যায়নি। আর্থিক অনটন, সম্পর্কের টানাপোড়েন নাকি অন্য কোনও কারণ, অনুসন্ধান শুরু করেছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ