BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মহিলার গোপনাঙ্গ থেকে সোয়াব নিয়ে কোভিড পরীক্ষা, হাজতে অভিযুক্ত

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 31, 2020 2:04 pm|    Updated: July 31, 2020 2:04 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা পরীক্ষার (Covid Test) নামে শ্লীলতাহানির অভিযোগ। সকলের যখন নাক থেকে সোয়াবের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। সেই সময় এক মহিলার গোপনাঙ্গ থেকে নমুনা সংগ্রহ করলেন এক ল্যাব টেকনিশিয়ান। মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) অমরাবতীর এই ঘটনায় অভিযুক্ত টেকনিশিয়ানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে এই ঘটনা তাজ্জব প্রশাসনিক কর্তারাও। রাজ্যের মহিলা ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রী যশোমতি ঠাকুর এই ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে অভিযুক্ত টেকনিশিয়ানের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের হুঁশিয়ারিও দেন।

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগকারিণী অমরাবতীর এক শপিং মলে কর্মরত। ২৪ জুলাই সেই শপিং মলের এক কর্মী করোনা আক্রান্ত হন। তাঁৎ সংস্পর্শে এসেছিলেন মলের কর্মীরা ফলে তাঁরাও তড়িঘড়ি কোভিড পরীক্ষা (Swab Test) করতে ছোটেন শপিং মলের ২৫ জন কর্মী। তাঁদের মধ্যে ওই মহিলাও ছিলেন।

[আরও পড়ুন : গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে রেকর্ড সংক্রমণ, মাত্র দু’দিনে করোনা আক্রান্ত লক্ষাধিক]

স্থানীয় থানার ইনস্পেক্টর বানজারি সংবাদ সংস্থাকে জানান, মঙ্গলবার অমরাবতীর ওই মলের ২৫ জন স্টাফের নাক থেকে সোয়াব সংগ্রহ করা হয়েছিল। সেইসময় ওই মহিলাকে আলাদা করে ডেকে, কোভিড পরীক্ষার অছিলায় ফের গোপনাঙ্গ থেকে সোয়াব সংগ্রহ করে অভিযুক্ত। ঘটনায় হতচকিত মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করলে, মঙ্গলবার রাতেই ওই ল্যাব টেকনিশিয়ান গ্রেপ্তার করে পুলিশ। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ধর্ষণ (৩৭৬) ছাড়াও ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় মামলা রুজু হয়েছে।

নারীকল্যাণ মন্ত্রী যশোমতি জানান, “অমরাবতীর কালেক্টর শৈলেশ নাভালের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, অভিযুক্ত টেকনিশিয়ান গ্রেপ্তার হয়েছে। তাকে রেয়াত করা হবে না। ভবিষ্যতে এ ধরনের টেস্ট করা যাবে না বলে তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দেন।” এর আগে কোভিড কেয়ার সেন্টারেও করোনা আক্রান্ত এক মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল মুম্বইয়ে। এবার করোনা পরীক্ষার নামে শ্লীলতাহানি করা হল। স্বাভাবিকভাবেই একের পর এক এই ঘটনায় মহারাষ্ট্রে মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠে যাচ্ছে। 

[আরও পড়ুন : করোনা আবহে ভেজাল স্যানিটাইজার বিক্রির পর্দাফাঁস, কলকাতায় গ্রেপ্তার ২ অভিযুক্ত]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement