৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ওড়িশার একটি স্কুল থেকে উদ্ধার হল জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর ভাঙা মূর্তি। আর তার পাশে পড়ে রয়েছে খালি মদের বোতল ও পোড়া সিগারেটের টুকরো। লজ্জাজনক এই ঘটনাটি ঘটেছে বালাসোর শহরের শোভারামপুর এলাকায়। সোমবার এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন- ‘পক্ষ বা বিপক্ষ নয়, নিরপেক্ষ হোন’, সাংসদদের পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর]

এপ্রসঙ্গে এক পুলিশ আধিকারিক জানান, মূর্তির পাশাপাশি মহাত্মা গান্ধীর স্মৃতির উদ্দেশ্যে তৈরি করা বাপুজী কক্ষেও ভাঙচুর চালানো হয়েছে৷ ঘরটি থেকে প্রচুর আধ পোড়া সিগারেটের টুকরো ও খালি মদের বোতল উদ্ধার হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গরমের ছুটির জন্য বন্ধ ছিল স্কুলটি। রবিবার স্থানীয় কিছু ব্যক্তি বাইরে থেকে দেখেন ক্যাম্পাসের মধ্যে কিছু গাছ উলটে পড়ে আছে। ভিতরে ঢুকে দেখতে পান মাটিতে কাটা অবস্থায় পড়ে রয়েছে গাছগুলি৷ এরপর চোখে পড়ে গান্ধীজীর নামাঙ্কিত ঘরটির তালাও ভাঙা রয়েছে। আর ভাঙা অবস্থায় পড়ে রয়েছে গান্ধী মূর্তির মাথার দিকের অংশ।

[আরও পড়ুন- বিজেপিতে অর্জুন-আত্মীয় সুনীল সিং, যোগদান গাড়ুলিয়া পুরসভার ১৬ কাউন্সিলরেরও]

এপ্রসঙ্গে সাহাদেবকুন্তা পুলিশ স্টেশনের আইসি শুভ্রাংশু শেখর নায়েক বলেন, “গত ১৪ জুন ঘটনাটি ঘটেছে বলে মনে হচ্ছে। গরম ছুটির জন্য ওই আপার প্রাইমরি স্কুলটি বন্ধ ছিল। সেই সুযোগে কিছু সমাজবিরোধী এই ঘটনা ঘটিয়েছে। একটি অভিযোগ দায়ের করে তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে এই ঘটনায় কোনও রাজনৈতিক দল জড়িয়ে নেই বলেই মনে করা হচ্ছে।”

লোকসভা ভোটের প্রচারে এসে কলকাতায় রোড শো করেছিলেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। ওইদিন বিদ্যাসাগর কলেজের মধ্যে থাকা ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙচুর করে একদল দুষ্কৃতী। এরপরই একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তোলে তৃণমূল ও বিজেপি। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই ওড়িশার সরকারি স্কুলে পড়ে থাকতে দেখা গেল জাতির জনকের ভাঙা মূর্তি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং