BREAKING NEWS

৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

চেন্নাই পুলিশের হাতে ধৃত প্রয়াত জয়ললিতার ‘ছেলে’!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 9, 2017 6:30 am|    Updated: December 16, 2019 4:45 pm

Man claiming to be Jayalalithaa's son arrested by Chennai city police

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দাবি করেছিলেন তিনি নাকি তামিলনাড়ুর প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার ছেলে। এমনকী মাদ্রাজ হাই কোর্টে মামলাও করেছিলেন। জমা দিয়েছিলেন কাগজপত্রও। কিন্তু আদালতে মিথ্যে মামলা করার অভিযোগে গত ২৭ মার্চ মামলাকারী কৃষ্ণামূর্তিকেই আটক করার নির্দেশ পেয়েছিল পুলিশ। আর আদালতের নির্দেশমতো গত শুক্রবার ২৮ বছর বয়সি ওই ব্যক্তিকে আটক করল চেন্নাই সিটি পুলিশ।

[এবার থেকে অন্তর্দেশীয় উড়ানেও লাগবে আধার নম্বর বা পাসপোর্ট]

জানা গিয়েছে, শুক্রবার দিন্দিগুল বাস টার্মিনাস থেকে পুলিশ ওই ব্যক্তিকে আটক করে। তাঁর মোবাইল টাওয়ারের লোকেশন দেখেই কৃ্ষ্ণামূর্তির হদিশ পায় পুলিশ। আটক করে তাঁকে এগমোরের ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে নিয়ে আসা হয়। এরপরে পুজহাল জেলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। কেন সে এই কাজ করেছিল, সেটা জানতে আপাতত তাঁকে নিজেদের হেফাজতে নিতে চায় চেন্নাই পুলিশ।

[স্বামীর মৃত্যুসংবাদ ব্রেকিং নিউজে পড়লেন এই সঞ্চালক]

এর আগে মাদ্রাজ হাই কোর্টে মামলা করে কৃষ্ণামূর্তি জানায়, প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা এবং তেলুগু অভিনেতা শোভনবাবুর ছেলে। জমা দিয়েছিল সেই সংক্রান্ত নথিও, যেখানে লেখা ছিল জয়ললিতা ও শোভনবাবু তাঁকে দত্তক নিয়েছিল। পাশাপাশি দাবি করেছিলেন, তিনিই ‘আম্মা’-র সমস্ত স্থাবর-অস্থাবরের উত্তরাধিকারী। এমনকী, তাঁকে নাকি খুনও করতে পারে আম্মার সম্পত্তির অন্যান্য ভাগীদার এবং ভি কে শশীকলা। চেয়েছিলেন পুলিশি নিরাপত্তাও।

[কেন অনুরাগীদের সঙ্গে দেখা করলেন না রজনীকান্ত?]

কিন্তু কৃষ্ণামূর্তির জমা দেওয়া নথি খতিয়ে দেখে এবং তদন্ত করে পুলিশ জানতে পারে ওই নথি ভুয়ো। তিনি জয়ললিতার সন্তান নন। তাঁর আসল বাবা-মা ত্রিপুরের বাসিন্দা। এমনকী পুরানো যে স্টাম্পপেপারগুলি তিনি ব্যবহার করেছিলেন সেগুলিও ভুয়ো। সুব্রহ্মণ্যম নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে কেনা। এরপরেই আদালত কৃষ্ণামূর্তিকে ভর্ৎসনা করে এবং পুলিশকে নির্দেশ দেয় জালিয়াতি ও মিথ্যে মামলা করার জন্য তাঁকে যেন আটক করে।

[বাবাকে হারিয়েও মাঠে ঋষভ পন্থ, দায়বদ্ধতার নজির গড়লেন তরুণ তুর্কি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে