২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মঙ্গলবার অরুণাচল প্রদেশে জঙ্গিদের গুলিতে এক বিধায়ক-সহ ১০ জনের মৃত্যু হয়। ওই ঘটনার পর সেনাবাহিনী জঙ্গিদের বিরুদ্ধে জোরদার তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে বলে জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজিজু।

[ আরও পড়ুন: ভারতীয় বায়ুসেনার অফিসে সিঁদ কেটে হামলা, প্যারিসে রাফালে তথ্য চুরির চেষ্টা!]

দিল্লিতে থাকা রিজিজু এদিন ফেসবুকে লেখেন, “মঙ্গলবারের ঘটনার বদলা নিতে নিরাপত্তা বাহিনী পূর্ব অরুণাচল প্রদেশে জোরদার তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে। যখন স্থানীয় বাসিন্দারা নাশকতার সঙ্গে জড়িত থাকেন এবং জঙ্গিদের সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রাখেন সেক্ষেত্রে নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানে জঙ্গিদের সঙ্গেও তাঁদেরও ক্ষতি হতে পারে।” মঙ্গলবার সন্দেহভাজন এনএসসিএন জঙ্গিরা পূর্ব অরুণাচলের তিরাপ জেলায় ন্যাশনাল পিপলস পার্টির বিধায়ক তিরং আবোকে গুলি করে খুন করে। ওই ঘটনায় আরও ১০ জনকে গুলি করে মারে জঙ্গিরা। মৃতদের মধ্যে বিধায়কের ছেলেও আছেন। জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় মানুষকে নিরাপত্তা কর্মীদের সঙ্গে সহযোগিতা করতে আহ্বান জানান রিজিজু।

[ আরও পড়ুন: ভোটগণনার দিন হতে পারে অশান্তি, রাজ্যগুলিকে সতর্ক করল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক]

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, স্থানীয় গ্রামবাসীরা যদি জঙ্গিদের আশ্রয় দেন, জঙ্গিদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেন সেক্ষেত্রে জঙ্গিদমন করা নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে খুবই কঠিন হয়ে পড়ে। জঙ্গিদের সম্পর্কে কোনও খবর থাকলে তা পুলিশ বা নিরাপত্তা বাহিনীকে জানাতে পরামর্শ দেন মন্ত্রী। একই সঙ্গে সরাসরি নাম না করে কংগ্রেস এবং কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে কটাক্ষ করে বলেন, “কেউ কেউ সেনাবাহিনীর বিশেষ আইন আফস্পা তুলে দেওয়ার দাবি করেছেন। এই সব নেতাদের জন্য জঙ্গিরাই উৎসাহিত হচ্ছে। এই সব দল বা ব্যক্তিকে মনে রাখতে হবে জঙ্গি দমনে সরকারের সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়েই কাজ করা উচিত। অন্যথায় দেশের অস্তিত্বই বিপন্ন হতে পারে।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং