Advertisement
Advertisement

Breaking News

Mehbooba Mufti

ভোটের মুখে মেহেবুবা মুফতিকে বাংলো ছাড়ার নোটিস, ফের বিতর্ক কাশ্মীরে

গুপকর রোডের বাংলোর বদলে বিকল্প বাড়ি দেওয়া হবে মেহেবুবাকে।

Mehbooba Mufti asked to leave Gupkar Road house by Nov 15 | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি।

Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:October 28, 2022 11:33 am
  • Updated:October 28, 2022 11:33 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটের মুখে রাজনৈতিক চাপ তৈরির চেষ্টা! মেহেবুবা মুফতিকে বাংলো ছাড়ার নোটিস দিল কাশ্মীর (Kashmir) প্রশাসন। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে আগামী ১৫ নভেম্বরের মধ্যে তাঁর গুপকর রোডের বাংলো ফাঁকা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যদিও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে বিকল্প একটি বাড়ির ব্যবস্থা তাঁর জন্য করা হচ্ছে।

২০০৫ সালে মেহেবুবার বাবা মুফতি মহম্মদ সৈয়দ (Mufti Mohammad Sayeed) মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর থেকেই গুপকর রোডের বিলাসবহুল বাংলোয় থাকতেন মেহেবুবা। তাঁর পরিবারের অন্য সদস্যরাও ওই বাড়িতেই থাকতেন। কিন্তু গত ১৫ অক্টোবর কাশ্মীর প্রশাসন তাঁকে বাড়িটি ছাড়ার নোটিস দেয়। মেহেবুবা (Mehbooba Mufti ) পালটা বাংলো হাতে রাখার জন্য আবেদন করেন। কিন্তু তাঁর সেই আবেদন নাকচ করে দিয়েছে কাশ্মীর প্রশাসন। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ১৫ নভেম্বরের মধ্যেই তাঁকে গুপকর রোডের বাড়ি ফাঁকা করে নতুন যে বাড়ি দেওয়া হয়েছে, সেখানে চলে যেতে হবে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: টাকার জন্য কলেজ কর্তৃপক্ষকে হুমকি! অজান্তেই মানিকের ‘পকেট ভরান’ সাড়ে ৪৯ হাজার বিএড পড়ুয়া]

এই গুপকর রোডের বাড়িটি রাজনৈতিকভাবে বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। এই বাড়ি থেকেই জনসংযোগ করতেন মেহেবুবার বাবা। তিনি নিজেও দীর্ঘদিন দলের নেতাকর্মীদের এই বাড়ি থেকেই নিয়ন্ত্রণ করেছেন। এমনকী কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহারের পর যে গুপকর জোট তৈরি হয়েছে, সেটার গোড়াপত্তনও এই গুপকর রোডের বাড়িতেই। এ হেন বাংলো খালি করার নির্দেশের পিছনে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার তত্ত্বই দেখছেন পিডিপি (PDP) নেতারা। সব ঠিক থাকলে চলতি বছরই কাশ্মীরে ভোট হওয়ার কথা। তার আগে এই নির্দেশ নিঃসন্দেহে উপত্যকায় রাজনৈতিক উত্তাপ বাড়াবে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: SSC Scam: অভিনব প্রতিবাদ, ভাইফোঁটায় ধর্মতলায় যমপুজো আন্দোলনকারী চাকরিপ্রার্থীদের!]

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা (Special Status) প্রত্যাহার করার করার ঠিক আগে আগে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি, ওমর আবদুল্লা-সহ একাধিক স্থানীয় নেতানেত্রীকে আটক করে সরকার। পরে তাঁদের গৃহবন্দি করে রাখা হয়। ২০২০ অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহে সেই বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়েছেন কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। এরপরও একাধিকবার সাময়িকভাবে গৃহবন্দি করা হয়েছে তাঁকে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ