BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পেটে খাবার নেই, পরিযায়ী শ্রমিকদের বিক্ষোভে উত্তাল মধ্যপ্রদেশ সীমানা

Published by: Paramita Paul |    Posted: May 15, 2020 9:47 am|    Updated: May 15, 2020 9:47 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনে কাজ হারিয়েছেন ওঁরা। পেটে খাবার নেই। মাথার উপর ছাদ নেই। এমন অবস্থায় বাড়ি ফিরতে উদগ্রী দেশের পরিযায়ী শ্রমিকরা। কিন্তু তাতেও তো শান্তি নেই। পরিবহণের অব্যবস্থার অভিযোগ তুলে বিভিন্ন রাজ্যে সরব হয়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। এ নিয়ে বিভিন্ন রাজ্যে বিক্ষোভও দেখাচ্ছেন তাঁরা। যেমন মহারাষ্ট্র-মধ্যপ্রদেশ সীমানায় জাতীয় সড়কে বিক্ষোভে শামিল হয়েছেন ঘরে ফিরতে চাওয়া শ্রমিকরা। অভিযোগ, সীমানা পর্যন্ত মহারাষ্ট্র সরকার পৌঁছে দিলেও মধ্যপ্রদেশ প্রশাসন তাঁদের জন্য কোনও ব্যবস্থাই করছেন না। যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মধ্যপ্রদেশ প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার মধ্যপ্রদে্শ-মহারাষ্ট্র সীমানা সেন্ধয়া এলাকায় বিক্ষোভ মাখাচারা দেয়। অভিযোগ, ৩ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। ফলে যানজট বেঁধে যায়। এমনকী পরিস্থিতি সামাল দিতে গিয়ে আক্রান্ত হন পুলিশকর্মীরাও। তাঁদের লক্ষ্য করে ইট, পাথর ছোঁড়া হয় বলে অভিযোগ। পাথরের ঘায়ে কয়েকজন পুলিশকর্মী জখম হন। এমনকী, পুলিশের গাড়ির কাঁচ ভাঙে। বেশকিছুক্ষণের চেষ্টায় পরিস্থিতি নিয়মন্ত্রণে আসে।

[আরও পড়ুন: দেশীয় গবেষণায় অগ্রাধিকার! PM CARES থেকে করোনার টিকা তৈরিতে বরাদ্দ ১০০ কোটি]

বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকদের অভিযোগ, মহারাষ্ট্রে দীর্ঘদিন ধরে তাঁরা আটকে ছিলেন। কিন্ত ফেরানোর কোনও ব্যবস্থাই করেনি মধ্যপ্রদেশ সরকার। মহারাষ্ট্রের তরফে বাসে করে তাঁদের দুই রাদ্যের সীমানায় পৌঁছে দেওয়া হয়। কিন্তু তারপর ঘরে ফেরার কোনও ব্যবস্থা করা হচ্ছে না।এমনকী, দীর্ঘ সময় তাঁরা খাবার, জল ছাড়া দুই রাজ্যের সীমানায় আটকে ছিলেন। শেষমেষ বিক্ষোভ দেখাতে বাধ্য হন। ভাইরাল হওয়া ফুটেজে দেখা যায়, জাতীয় সড়কের ধার ধরে ওঁরা দৌড়চ্ছেন। কেউ কেউ পরিশ্রান্ত হয়ে রাস্তার মাঝেই বসে পড়েছেন।

[আরও পড়ুন: ‘পরিযায়ী শ্রমিকরা দেশের আত্মসম্মান, মাথা নোয়াতে দেওয়া যাবে না’, টুইট রাহুলের]

যদিও পরিযায়ী শ্রমিকদের অভিযোগ উড়য়ে দিয়েছেন মধ্যপ্রদেশের প্রশাসনিক কর্তা অমিত তোমর। তাঁর কথায়, পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু ওই শ্রমিকরা সেই বাস মিস করেন। তাই সমস্যা হয়েছিল। কিন্তু তাঁদের ঘরে ফেরানোর সমস্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement