BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাজস্থানে বিধায়ক কেনাবেচার দর আকাশ ছোঁয়া! শিবির বাঁচাতে সঙ্গীদের জয়সলমেরে সরাচ্ছেন গেহলট

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 31, 2020 11:34 am|    Updated: July 31, 2020 11:34 am

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজস্থানে (Rajasthan) ঘোড়া কেনাবেচার দর ক্রমশ বাড়ছে। আগে বিধায়ক পিছু ছিল ২৫ লক্ষ কোটি টাকার টোপ দেওয়া হচ্ছিল। এবার বিধায়করা যত টাকা চাইবেন, তা দেওয়া হবে বলে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। বিধানসভা অধিবেশনের দিনক্ষণ ঘোষণ হতেই রাজস্থানের (Rajasthan) প্রধান বিরোধী দল বিজেপির বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করলেন মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট (Ashok Gehlot)। আগামী, ১৭ আগস্ট মরুরাজ্যে আস্থাভোট হতে পারে বলেও সূত্রের খবর। তার আগে আরও কোনও ঝুঁকি নিতে রাজি নয় কংগ্রেস (Congress) শিবির। তাই তড়িঘড়ি গেহলট শিবিরের বিধায়কদের জয়সলমীরের একটি রিসর্টে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে।

আগামী ১৪ আগস্ট থেকে রাজস্থান (Rajasthan) বিধানসভার অধিবেশন শুরু করার নির্দেশ দিলেন রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্র। বুধবার এই বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে তাঁর নির্দেশে। রাজ্যপালের দপ্তর থেকে প্রকাশিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, মন্ত্রিসভার তরফে পাঠানো প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে আগামী ১৪ আগস্ট থেকে রাজস্থান (Rajasthan) বিধানসভার পঞ্চম অধিবেশন শুরু করার অনুমতি দিয়েছেন রাজ্যপাল। তবে এই অধিবেশনে বিধায়কদের সবরকম স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে বলেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এরপরই দুই শিবিরেই তৎপরতা বেড়েছে।

[আরও পড়ুন : চিনের দাবি ওড়াল ভারত, লাদাখ থেকে সম্পূর্ণভাবে সেনা প্রত্যাহার হয়নি, জানাল কেন্দ্র]

শুক্রবারই জয়পুরের হোটেল ছেড়ে জয়সলমের রওনা দেওয়ার কথা গেহলট (Ashok Gehlot) শিবিরের। কিন্তু কেন এমন সিদ্ধান্ত? গেহলটের (Ashok Gehlot) দাবি, “বিধায়ক কেনাবেচার অনেকটা সময় পেয়েছে বিজেপি। এই সময়ের মধ্যে  বিধায়ক কিনতে ‘মু মাঙ্গি কিমত’ দিতে তৈরি তাঁরা (বিজেপি)”। গেহলটের (Ashok Gehlot) কথায়, “আগে একজন বিধায়ক দলবদল করলে প্রথমে ১০ কোটি ও পরে ১৫ কোটি টাকার টোপ দেওয়া হচ্ছিল। এবার সেটা আকাশ ছোঁয়া হয়েছে। বলা হচ্ছে. বিধায়করা যা চাইবেন তাই দেওয়া হবে।” ফলে বিধায়কদের আরও সুরক্ষিত জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চলছে। তবে আরেক সূত্রের খবর, গেহলট বৃহস্পতিবার ফতোয়া জারি করেছেন, অধিবেশনের আগেও অবধি ক্যাম্প ছেড়ে যেতে পারবেন না বিধায়করা। তাঁর এই সিদ্ধান্তে খুব একটা খুশি নন বিধায়করা। তাই তাঁদের মনোরঞ্জন করতে স্থান বদল করা হচ্ছে।  

[আরও পড়ুন : ফের অসুস্থ কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী, ভরতি দিল্লির হাসপাতালে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement