BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দেশের আর্থিক বৃদ্ধির হার কমবে ৫.৮ শতাংশে, আশঙ্কা আন্তর্জাতিক সংস্থার রিপোর্টে

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: October 11, 2019 8:48 am|    Updated: October 11, 2019 8:48 am

Moody’s cuts India’s GDP growth forecast to 5.8% for next financial year

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের মতো উন্নয়নশীল দেশের অর্থনীতি নিয়ে ইতিমধ্যেই আশঙ্কার কথা শুনিয়েছে আন্তর্জাতিক অর্থভাণ্ডার বা আইএমএফ। সেই আশঙ্কা এবার আরও উসকে দিল মুডিজ ইনভেস্টর সার্ভিসের সমীক্ষা। ২০১৯-’২০ সালে দেশের জিডিপি বৃদ্ধির হার ৬.১ শতাংশে পৌঁছবে বলে গত সপ্তাহেই আশাপ্রকাশ করেছিল রিজার্ভ ব‌্যাংক। কিন্তু সেই আশায় জল ঢেলে দিল মুডিজ-এর রিপোর্ট। আদতে ভারতের জিডিপি বৃদ্ধির হার ৫.৮ শতাংশে এসে ঠেকতে পারে বলে বৃহস্পতিবার আশঙ্কা প্রকাশ করেছে তারা। যদিও আগে মুডিজই ভারতের বৃদ্ধির হার ৬.২ শতাংশ হবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছিল।

মূলত বিনিয়োগে শ্লথ গতি এবং তার জেরে মন্দার জন‌্যই এই অবস্থা হবে বলে তারা মনে করছে। মুডিজ-এর মত, মন্দার জেরে চাহিদা কমবে, রুগ্‌ণ হবে গ্রামীণ অর্থনীতি। পাশাপাশি নতুন কর্মসংস্থান হবে না। সব মিলিয়ে বৃদ্ধির হার কমতে বাধ‌্য। গোটা বিশ্বের সেরা ক্রেডিট রেটিং সংস্থাগুলির মধ্যে অন্যতম মুডিজ। তাদের সমীক্ষাতেই উঠে এসেছে ভারতীয় অর্থনীতির গতিহীনতার সম্ভাবনার কথা। সংস্থাটির তরফে বৃদ্ধির হার কমার নানা কারণ তুলে ধরা হয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি আঙুল তোলা হয়েছে দেশের অন্দরের কয়েকটি কারণের দিকে। এবং সেগুলি দীর্ঘস্থায়ী হতে পারে বলে জানানো হয়েছে রিপোর্টে। যেমন, বিনিয়োগের ক্ষেত্রে গোটা দেশেই মন্দা দেখা দিয়েছে। কর্মসংস্থান সৃষ্টির ক্ষেত্রও অনেকটা কমে গিয়েছে। কৃষি-সহ নানা ক্ষেত্রে শক্তি হারিয়ে রুগ্‌ণ হয়েছে গ্রামীণ অর্থনীতিও। খুচরো ঋণ দেওয়ার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নেয় নন-ব‌্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলি। তাদের হাতেও নগদের আকাল। ফলে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়েছে। আর এ সব কারণেই দেশের জিডিপির হার কমে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে বলে মত মুডিজ-এর মতো সংস্থার।

[আরও পড়ুন: ১৫০টি ট্রেনকে বেসরকারিকরণের প্রক্রিয়া শুরু রেলের, তৈরি হচ্ছে টাস্ক ফোর্স]

তবে, ২০২০-’২১ সাল নাগাদ ভারতের অর্থনীতি এই ধাক্কা কিছুটা কাটিয়ে উঠে মাঝারি মানে পৌঁছতে পারে বলেও আশাপ্রকাশ করছে মুডিজ। সংস্থার দাবি, ওই সময় জিডিপি ৬.৬ থেকে ৭ শতাংশ পর্যন্ত পৌঁছতে পারে। আগামী দু’বছরে জিডিপির হার ও মুদ্রাস্ফীতি বাড়বে বলে আশা করা হয়েছিল। তার পর তা পুনর্মূল্যায়ন করা হয়। তবে ৮ শতাংশ বা তার উপরে জিডিপি যাওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ। এপ্রিল-জুন ত্রৈমাসিকে ভারতের আর্থিক বৃদ্ধির হার গত ছ’বছরে সর্বনিম্ন পাঁচ শতাংশে নেমে গিয়েছিল। রিজার্ভ ব‌্যাংকের দাবি, জুলাই-সেপ্টেম্বর ত্রৈমাসিকে তা ৫.৩ শতাংশে পৌঁছবে।

[আরও পড়ুন: ফের সেভিংস অ্যাকাউন্ট এবং ফিক্সড ডিপোজিটে সুদের হার কমাল স্টেট ব্যাংক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে