BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ২৫ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মুসলমান যুবকদের মারধর করে বলানো হল ‘জয় শ্রীরাম’, চাঞ্চল্য অসমে

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: June 21, 2019 2:33 pm|    Updated: June 21, 2019 2:33 pm

Muslim Men Beaten Up In Assam's Barpeta, Forced To Chant Jai Shri Ram

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুসলিমদের বেধড়ক পিটিয়ে ‘জয় শ্রীরাম‘ বলতে বাধ্য করার ঘটনায় উত্তেজনা ছড়াল। ঘটনাটি ঘটেছে অসমের বরপেটা শহরে। এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হতেই বিতর্ক শুরু হয়েছে রাজ্যজুড়ে। বরপেটার পুলিশ সুপারের কাছে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় কংগ্রেস বিধায়ক আবদুল খালেক। দুটি এফআইআরও দায়ের হয়েছে স্থানীয় একটি হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের বিরুদ্ধে।

[আরও পড়ুন- ডেডলাইনের ঊর্ধ্বে মানবতা, এনসেফেলাইটিস আক্রান্ত শিশুকে নিয়ে হাসপাতালে সাংবাদিক]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে বরপেটা শহরে অটোয় করে যাচ্ছিলেন মুসলিম সম্প্রদায়ের কিছু মানুষ। আচমকা একটি হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের কয়েকজন সদস্য তাঁদের অটো আটকায়। তারপর অটো থেকে নামিয়ে বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ। মারধরের পর ‘জয় শ্রীরাম’, ‘ভারত মাতা কী জয়‘ ও ‘পাকিস্তান মুর্দাবাদ‘ বলে স্লোগান দিতেও বাধ্য করে। আর পুরো ঘটনাটির ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দেয়। ভিডিওটি ভাইরাল হতে শোরগোল পড়ে যায় রাজ্যজুড়ে। ওই হিন্দুত্ববাদী সংগঠন ও তার প্রতিষ্ঠাতার বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করে অল অসম মাইনরিটি স্টুডেন্ট ইউনিয়ন(এএএমএসইউ) ও নর্থ-ইস্ট মাইনরিটিস স্টুডেন্ট ইউনিয়ন(এনইএমএসইউ)।

[আরও পড়ুন- গুজরাট দাঙ্গায় মোদির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা আইপিএস অফিসারের যাবজ্জীবন]

এপ্রসঙ্গে ওই সংগঠন দুটির তরফে জানানো হয়েছে,  ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই দোষীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে তারা। অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ। না হলে আরও বড় আন্দোলনের পথে হাঁটবে তারা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই ঘটনার ভিডিও-র ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার দুটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে আক্রান্ত ব্যক্তিদের তরফে এখনও অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে